সন্ত্রাসী পরিবারের সাথে `সন্ত্রাস বিরোধী’ আইভী

0

সমর্থকরা বলে থাকেন সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে প্রতিবাদী কন্ঠস্বর মেয়র আইভী। তার কোন সন্ত্রাসী বাহিনী নেই। সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে শক্ত অবস্থান তার। খোদ মেয়র আইভীও কথায় কথায় বলে থাকেন, ‘সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ান’। সোমবার (১৩ সেপ্টেম্বর) মেয়াদ শেষ হওয়ার প্রক্কালে সারা বছরের বাজেট ঘোষনাকালে মেয়র বলেছেন, ‘মেয়র থাকি বা না থাকি… সন্ত্রাসের বিপক্ষে থাকবো। যতক্ষণ বেঁচে থাকবো ততক্ষণ অন্যায়ের বিরুদ্ধে কথা বলবো’। এসব বক্তব্য নিয়ে নগরবাসীর মাঝে ব্যাপক প্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছে। প্রশ্ন উঠেছে, আসলে তিনি কোন সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে?

স্থানীয়দের অভিযোগ, আসলে মেয়র আইভী সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে না, তার অবস্থান নারায়ণগঞ্জের ঐতিহ্যবাহী আওয়ামী পরিবার হিসেবে খ্যাত ওসমান পরিবারের বিপক্ষে। তিনি নিজ দলের নেতা-কমীদের বিরুদ্ধে। দলীয় এমপি শামীম ওসমানকে নিয়ে তিনি প্রকাশ্যে যেসব কথা বলেন, তা দলীয় শৃংখলা ভঙ্গের শামিল। শুধু শামীম ওসমান না, সুযোগ বুঝে প্রধাণমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও সরকারের বিরুদ্ধেও কথা বলেন মেয়র আইভী। কখনো বলেন তিনি আওয়ামীলীগের আবার কখনো বলেন নির্দলীয়। এসব কারণে দ্বিধা-দন্ধে দলের তৃনমূল। বিএনপি-জামায়াত ঘেষা আইভীকে এসব কারনে দল থেকে বহিস্কারের দাবিও উঠেছে একাধিকবার।

নগরবাসীর অভিযোগ, বিএনপি-জামায়াত জোট সরকারের আমলে শহরের দক্ষিনাঞ্চলের দূর্ধর্ষ সন্ত্রাসী বাহিনীর প্রধাণ হাসান আহমেদ। দেওভোগ-বাবুরাইল এলাকায় যে বাহিনী এখনো ভয়ানক আতংকের নাম। সাম্প্রতিক সময়ের আলোচিত জোড়া হত্যাকান্ডসহ বহু মামলার আসামী সেই কূখ্যাত সন্ত্রাসী হাসান আহমেদ এর স্ত্রী আফসানা আফরোজ বিভা বর্তমানে নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলর ও প্যানেল মেয়র। যিনি মেয়র আইভীর সার্বক্ষনিক সঙ্গী। ২০০৯ সালে আওয়ামীলীগ ক্ষমতায় আসার পর মন্ডলপাড়া ট্রাকস্ট্যান্ড নিয়ে পরিবহন শ্রমিকদের সাথে মেয়র আইভী বাহিনীর তুমুল সংঘর্ষ হয়। ঐ সংঘর্ষে মেয়র আইভীর পক্ষে সিপাহসালারের ভূমিকা পালন করে কূখ্যাত সন্ত্রাসী হাসান। আইভীর পক্ষ হয়ে সন্ত্রাসী বাহিনী নিয়ে কাজ করার পুরস্কার স্বরুপ সন্ত্রাসী হাসানকে সেসময় মন্ডলপাড়া ব্রীজের পাশে সিটি কর্পোরেশনের মার্কেটের ২য় তলায় পুরো ফ্লোর নামমাত্র মুল্যে বরাদ্দ দেওয়ার অভিযোগ উঠেছিল। শহরের জিমখানা বস্তির কমপক্সে ১০ হাজার মানুষের মাথার ছাদ কেড়ে নেয়ার পিছনে ছিল বিভা হাসানের স্বামী শীর্ষ সন্ত্রাসী হাসান বাহিনীর পেশী শক্তি।

মেয়রের পক্ষে সার্বক্ষনিক ভূমিকা রাখা বিএনপির সন্ত্রাসী হাসানের স্ত্রী আফসানা আফরোজ বিভা গত সিটি নির্বাচনে সংরক্ষিত আসন থেকে কাউন্সিলর হলে আওয়ামীলীগের প্যানেল মেয়র প্রার্থীর বিপক্ষে গিয়ে বিভার পক্ষে কোমর বেধে নামার অভিযোগ উঠেছিল মেয়র আইভীর বিরুদ্ধে। আইভীর তৎপরতায় বিএনপি ক্যাডারের স্ত্রী বিভা প্যানেল মেয়র পদে জয়ী হন। এরপর থেকে বিভিন্ন সুযোগ-সুবিধা দিয়ে বিভাকে কাছে টানেন মেয়র আইভী। বর্তমানে বিভাই মেয়র আইভীর সার্বক্ষনিক সঙ্গী।

সম্প্রতি মেয়র আইভীর ও বিভার একটি ঘনিষ্ঠ ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। বিএনপির ক্যাডারের স্ত্রীর সাথে নৌকার মেয়র আইভীর মাখামাখি নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সমালোচনার ঝড় বয়ে যায়।

সোমবার দুপুরে শহরের আলী আহাম্মদ চুনকা নগর পাঠাগার ও মিলনায়তনে নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের ২০২১-২২ অর্থবছরের বাজেট অধিবেশন সভায় মেয়র আইভী তার বক্তব্যে বিভা হাসানের প্রশংসায় পঞ্চমুখ ছিলেন। বিষয়টি নিয়ে অনেক কাউন্সিলরের মাঝেও চাপা ক্ষোভ বিরাজ করছে বলে জানা গেছে। নাম প্রকাশ না করার শর্তে তারা জানান, বিভা হাসান কে? এটা পুরো শহরবাসী জানে। সে বিএনপি করে, তার পুরো পরিবার বিএনপি করে। একটি সন্ত্রাসের স্ত্রী। একটি সন্ত্রাসী পরিবার। আর তিনিই কিনা মেয়র আইভীর সার্বক্ষনিক সঙ্গী। সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে কথা বলেন সন্ত্রাসীদেও সাথে সখ্যতা রেখে, এ প্রশ্নের উত্তর কে দিবে? যে সন্ত্রাসের জন্য বিএনপির অসংখ্য নেতা-কর্মী হাসান বাহিনীকে ঘৃনা কওে, অপছন্দ করে, সেই পরিবারকে পৃষ্ঠপোষকতা করছেন মেয়র আইভী। আবার মুখে বলেন তিনি আওয়ামীলীগ। ‘পুরোইটাই ভেলকিবাজি’ বলে মন্তব্য করেছেন নগরীর প্রবীন নাগরিকরা।

0