সমবায় মা‌র্কে‌টে মা-‌মে‌য়ে লা‌ঞ্ছিত: যুবক মারধরের শিকার, থানায় অভিযোগ

0

লাইভ নারয়ণগঞ্জ: চাষাড়া সমবায় মার্কেটের নারী ক্রেতার সাথে অশোভন আচরণের প্রতিবাদ করায় এক যুবককে তিন ঘণ্টা আটকে রেখে মারধর করে মার্কেটের বিক্রেতারা। এই ঘটনায় থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছে ভুক্তভোগি যুবক।

রবিবারে (২৩ ফেব্রুয়ারি) রাতে সদর মডেল থানায় অভিযোগ দায়ের করেন ভুক্তভোগি আ. রহিম। অভিযোগে কারো নাম উল্লেখ না করলেও অজ্ঞাতনামা ১০ থেকে পনেরজনের কথা উল্লেখ করেছেন।

নগরীর নিমতলা এলাকার বাসিন্দা মৃত আব্দুর রহমানের ছেলে রহিম অভিযোগে অভিযোগে উল্লেখ করেন, ২২ ফেব্রুয়ারি শনিবার রাত সোয়া নয়টার দিকে তিনি সমবায় মার্কেটের সামনে দিয়ে যাচ্ছিলেন। এসময় মার্কেটের নিচতলায় লোকজনের ভিড় দেখে তিনি দাঁড়ান। এবং তিনি দেখেন ১০ থেকে ১৫ জন মার্কেটের দোকান মালিক ও কর্মচারীরা একজন মহিলার সাথে অশোভন আচরণ করছেন। এ ঘটনায় তিনি প্রতিবাদ করায় দোকান মালিক কর্মচারীরা তাকে তিন ঘণ্টার মত আটকে মারধর করে। পরে অন্যরা তাকে উদ্ধার করে খানপুর তিনশ শয্যা হাসপাতালে নিয়ে চিকিৎসা দিয়েছেন।

সদর মডেল থানার আসাদুজ্জমান বলেন, অভিযোগ পেয়েছি। একজন অফিসারকে তদন্ত দেওয়া হয়েছে। তদন্তের সত্যতা যাচাই করে বাকী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

প্রসঙ্গত,শনিবার ২২ ফেব্রুয়ারি এক মা তার ১৫ বছর বয়সী এক কিশোর ছেলেকে নিয়ে সমবায় মার্কেটের নিচতলাতে আগের কেনা একটি পণ্য পরিবর্তন করার জন্য আসেন। কিন্তু দোকানি সেটি পরিবতর্ন করতে রাজি না হওয়াতে এ নিয়ে তর্ক শুরু হয়। এক পর্যায়ে উত্তেজিত হয়ে উঠে দোকানের বিক্রয় প্রতিনিধি কয়েকজন তরুসহ কয়েকজন। ওই নারীকে অশ্রাব্য ভাষায় কথা বলতে শুরু করলে প্রতিবাদ করেন সঙ্গে থাকা ১৫ বছরের ছেলেটি। এতে আরও ক্ষিপ্ত হয়ে উঠে বিক্রয় প্রতিনিধি। তার সাথে যোগ দেন অন্যান্য দোকানী ও বিক্রয় প্রতিনিধিরা। এক পর্যায়ে মহিলা তার ছেলেকে নিয়ে চলে যাওয়ার সময় দোকানিরা সমস্বরে বলে উঠেন, চলে যা নইলে ছিনতাইকারী বলে পুলিশে ধরিয়ে দেব। এদিকে ক্রেতার সাথে দোকানিদের তর্ক-বিতর্কের সময় মার্কেটের সামনে উৎসুক অনেক মানুষ এসে ভিড় করেন। তবে, ছিনতাইকারী হিসেবে পুলিশে তুলে দেওয়ার হুমকি দেওয়াতে উৎসুক জনতার মধ্য থেকে রহিম নামে একজন এর প্রতিবাদ করেন। অমনি তার উপর হামলে পড়েন দোকানীসহ বিক্রয় প্রতিনিধিরা। তাকে আটকে বেধড়ক পিটুনী দেন তারা।

0