সমিতির ঋণের টাকা চে‌য়ে প্রাণ গেল রাজনের

0

রূপগঞ্জ করেসপন্ডেট, লাইভ নারায়ণগঞ্জ: নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ উপজেলায় সমবায় সমিতির ঋণের টাকা চাওয়ায় মাদক ব্যবসায়ীরা মোবাইল ফোনে ডেকে নিয়ে এলোপাথারীভাবে কুপিয়ে গুরুতর আহত করে রাজন নামের এক ব্যক্তিকে। 

আহত রাজন শুক্রবার রাতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালে ১৬ দিন মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ে মারা যায় ব্যবসায়ী রাজন।

রাজন নারায়ণগঞ্জ জেলার সোনারগাঁও থানার আমগাঁও এলাকার তোফাজ্জল মিয়ার ছেলে।

নিহতের মামা আলতাফ কাজী জানান, উপজেলার তারাব পৌরসভার রূপসী কাজীপাড়া এলাকায় মামার বাড়িতেই বড় হয় রাজন। রাজন রূপসী এলাকায় তার মালিকানাধীন একটি সমবায় সমিতি (মাল্টিপারপাসের) ব্যবসা করতো। রূপসী ও  আশপাশের এলাকায়সহ বিভিন্নস্থানে তার কিছু সমিতির গ্রাহক রয়েছে। রূপসী কলাবাগান এলাকার একটি মাদক ব্যবসায়ী চক্র তার কাছ ঋণ নেয় বলে জানা যায়। এসময় রাজন তার ঋনের টাকা (কিস্তি) তোলতে গেলে ঋণ নেওয়া ঐ চক্রটি তাকে ঋণের টাকা পরিশোধ করেনা। এ নিয়ে নিয়ে মাদক ব্যবসায়ী চক্রটির সঙ্গে ব্যবসায়ী রাজনের বিরোধের সৃষ্টি হয়। গত ১৩ মে সন্ধ্যায় ইফতারের পর মোবাইল ফোনের মাধ্যমে ঋণের টাকা দেওয়ার কথা বলে রাজন ডেকে নিয়ে ওই মাদক ব্যবসায়ী চক্রটি। পরে মাদক ব্যবসায়ীরা রাজনকে একটি নির্জনস্থানে নিয়ে গলা কেটে হত্যার চেষ্টা করে। তাকে মৃত ভেবে মাদক ব্যবসায়ীরা একটি ড্রেনের মধ্যে ফেলে রেখে চলে যায়। পরে স্থানীয় লোকজন ঘোঙরানোর শব্দ শুনতে পেয়ে রাজনকে গুরুতর অবস্থায় উদ্ধার করে রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী হৃদরোগ হাসপাতালে ভর্তি করান। প্রায় ১৬ দিন মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ে শুক্রবার রাতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

রূপগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহমুদুল হাসান বলেন, এ ঘটনায় মামলা হয়েছে। ময়না তদন্তের জন্য নিহতের লাশ নারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। তদন্তের মাধ্যমে প্রকৃত খুনীকে গ্রেফতার করে দেশের প্রচলিত আইনে দৃশ্টান্তমূলক শাস্তির ব্যবস্থা করা হবে।

এলএন/এম/এইচএস/০৫৩০-১০
0