সরকারের বাজেট প্রত্যাখ্যান করে নগরীতে বাসদের মিছিল ও সমাবেশ

0

প্রেস বিজ্ঞপ্তি: বর্তমান সরকারের ঋণ নির্ভর বাজেট প্রত্যাখ্যান করার লক্ষে নগরীতে সমাবেশ ও শহরে বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্টিত হয়েছে। সোমবার (১৭ জুন) বিকাল ৫ টায় নারায়ণগঞ্জ কেন্দ্রীয় শহিদ মিনারে সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল-বাসদ নারায়ণগঞ্জ জেলা শাখার উদ্যোগে এর আয়োজন করা হয়।

সোমবার প্রেরিত এক বার্তায় এ তথ্য জানানো হয়অ বার্তায় আরও জানানো হয়, বাসদ নারায়ণগঞ্জ জেলা সমন্বয়ক নিখিল দাসের সভাপতিত্বে সমাবেশে বক্তব্য রাখেন বাসদ জেলা ফোরামের সদস্য আবু নাঈম খান বিপ্লব, গার্মেন্টস শ্রমিক ফ্রন্টের নারায়ণগঞ্জ জেলার সভাপতি সেলিম মাহমুদ, সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম গোলক, রি-রোলিং স্টিল মিলস শ্রমিক ফ্রন্ট নারায়ণগঞ্জ জেলার সাধারণ সম্পাদক এস এম কাদির, সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট নারায়ণগঞ্জ জেলার সভাপতি সুলতানা আক্তার।

নেতৃবৃন্দ বলেন, সরকার ২০১৯-২০ অর্থ বছরের জন্য ৫ লাখ ২৩ হাজার ১৯০ কোটি টাকার বিশাল বাজেট দিয়েছে। যার মধ্যে ১ লাখ ৪৫ হাজার ৩৮০ কোটি টাকা হলো ঘাটতি। বিশাল অংশের ঘাটতি ও ঋণ নিয়ে দেশের অগ্রগতি সম্ভব হবে না। ঋণ নির্ভর এই বাজেটে ঋণের সুদ পরিশোধে বাজেটের একটা বড় অংশ চলে যাবে। পরোক্ষ করের মাধ্যমে জনগণের উপর ব্যাপক মাত্রায় করের বোঝা চাপিয়ে দিলো। শিক্ষা খাতে সর্বোচ্চ বরাদ্দের কথা বললেও দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোর মধ্যে সর্বনিম্ন বরাদ্দ বাংলাদেশে। মোবাইলে ১০০ টাকার কথা বললে সরকার ২৭ টাকা কর কেটে নেবে। বাজেটে পোশাক মালিকদের প্রণোদনা বাড়ানো হলেও শ্রমিকদের স্বাস্থ্য, আবাসন নিয়ে কোন বরাদ্দ নেই। কালোটাকাকে সাদা করার ঘোষণার সাথে সরকারের দুর্নীতির বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স ঘোষণা অসংগতিপূর্ণ। ক্ষতিগ্রস্থ কৃষকদের সহায়তার কোন ঘোষণা বাজেটে নেই। ধনীদের সারচার্জের সীমায় ছাড় দিলেও করমুক্ত আয়সীমা আড়াই লাখ টাকাই রেখেছে অর্থমন্ত্রী।

নেতৃবৃন্দ বলেন, প্রস্তাবিত বাজেটে কালোটাকা সাদা করার সুযোগ দেয়া সংবিধানের ২০(২) অনুচ্ছেদের সুস্পষ্ট লঙ্ঘন করা হয়েছে। সংকটাপন্ন ব্যাংক খাতের সংস্কারে কার্যকর কোন পরিকল্পনা বাজেটে নেই। বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের রূপপুর পারমানবিক প্রকল্পের বরাদ্দ বাদ দিলে শিক্ষার বরাদ্দ অনেক কমে যায়। মধ্যবিত্তের সঞ্চয়পত্রের মুনাফার উপর উৎসেকর ৫% থেকে ১০% করা হয়েছে। সর্বোপরি ধনীদের জন্য ব্যাপক ছাড় দিলেও গরীব ও মধ্যবিত্তের পক্ষের কোন ঘোষণা বাজেটে নেই। নেতৃবৃন্দ ধনী তোষণ ও গরীব মারার বাজেটকে প্রত্যাখ্যান করার জন্য জনগণের প্রতি আহ্বান জানান।

0