সহকর্মী ও গৃহবধূ হত্যার দায়ে আটক ২ জন

0

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, লাইভ নারায়ণগঞ্জ : নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারে চাঞ্চল্যকর দুইটি হত্যা ঘটনার মূল অভিযুক্ত মোবারক(২৫) ও সুমন (২০) কে আড়াইহাজার থানা পুলিশ গ্রেফতার করেছে। পুলিশ গ্রেফতারকৃতদের আদালতে গ্রেফরন করলে উভয়ই হত্যার দায় স্বীকার করে আদালতে জবানবন্দি দিয়েছে বলে পুলিশ জানায়।

আড়াইহাজার থানা পুলিশ ও গোপালদী ফাঁড়ি পুলিশ সূত্রে জানাগেছে, গত ৮ অক্টোবর মঙ্গলবার ভোররাতে উপজেলার পুরিন্দা বাজার সংলগ্ন জুয়েলের হোন্ডা মেরামতের গ্যারেজের দুই কর্মচারী মজিবুর রহমান পারভেজ(১৭) ও তার সহকর্মী সুমন(২২) টাকা সংক্রান্ত ব্যাপার নিয়ে ঝগড়া হয়। ঐ সময় সুমনের ঘুষিতে মুজিবুর রহমান পারভেজ অজ্ঞান হয়ে পড়লে সহকর্মী সুমন তাকে ছুরি দিয়ে জবাই করে হত্যার পালিয়ে যায়। পুলিশ দীর্ঘদিন চেষ্টা করেও তাকে গ্রেফতার করতে পারেনি। ২ নভেম্বর রাতে পুলিশের উপপরিদর্শক শামীম ঢাকার যাত্রাবাড়ি এলাকায় অভিযান চালিয়ে ঘাতক সুমনকে গ্রেফতার করে। পুলিশ সূত্রে জানাগেছে, সুমন পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে হত্যার কথা স্বীকার করলে তাতে সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্যেট হুমায়ুন কবিরের আদালতে প্রেরন করলে, সুমন হত্যারদায় স্বীকার করে হত্যা কান্ডের বিস্তারিত বর্ননা দেন বলে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা শামীম জানান। নিহত মজিবুর রহমান পারভেজ ময়মনসিংহ জেলার ঈশ্বরগঞ্জ থানার বইরাটী মাইজবাগ এলাকার তারা মিয়ার ছেলে এবং ঘাতক সুমন নরসিংদী জেলার বাদুয়ারচর এলাকার সেন্টু মিয়ার ছেলে বলে জানাগেছে।

অপরদিকে একই দিন গভীর রাতে উপজেলার গোপালদী পৌরসভাধিন উত্তর কলাগাছিয়া গ্রামের হাসেন আলীর মেয়ে দুই সন্তানের জননী সালেহা বেগম(২৮) কে পারিবারিক কলহের জের ধরে ঘুমের মধ্যে জবাই করে পালিয়ে যায় স্বামী মোবারক হোসেন। এ ঘটনায় সালেহার পিতা বাদী হয়ে জামাই মোবারক হোসেনকে আসামী করে আড়াইহাজার থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন। পুলিশ বিভিন্ন স্থানে অভিযান করেও ঘাতক মোবরককে গ্রেফতার করতে পারেনি।

২নভেম্বর রাতে গোপালদী ফাঁড়ি পুলিশের আইসি উপপরিদর্শক নাসির গাজিপুর জেলার টঙ্গী এলাকায় অভিযান চালিয়ে ঘাতক স্বামী মোবারক হোসেনকে গ্রেফতার করেন। গ্রেফতারকৃত মোবারক হোসেন পুলিশি জিজ্ঞাসাবাদে হত্যার কথা স্বীকার করেলে তাকে নারায়ণগঞ্জ জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্যাট মো. মিল্টন হোসেনের আদালতে প্রেরন করলে ঘাতক মোবারক হোসেন ম্যাজিষ্ট্যাটের কাছে হত্যার দায় স্বীকার করে এবং হত্যাকান্ডের বিস্তারিত বিবরন দেন বলে মামলার তদন্তকারী অফিসার নাসির হোসেন জানান। ঘাতক মোবারক নরসিংদীর খাদিমারচর এলাকার আ. খালেক মিয়ার ছেলে বলে পুলিশ জানায়।

এ ব্যাপারে আড়াইহাজার থানার ওসি নজরুল ইসলাম জানান,গ্রেফতারকৃতদের আদালতে পাঠালে তারা স্বচ্ছায় হত্যার দায় স্বীকার করে আদালতে স্বীকারোক্তি দিয়েছে।

0