সাম্প্রদায়িক শক্তি বিনষ্ট হউক: শিখন সরকার

0

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, লাইভ নারায়ণণগঞ্জ: পরমেশ্বর ভগবান শ্রীকৃষ্ণের জন্মাষ্টমী উপলক্ষে গীতাপাঠ ও কৃষ্ণ পুজার আয়োজন করেছে বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদ। এছাড়া, বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক শিখন সরকার শিপনের নেতৃত্বে শ্রীকৃষ্ণের জন্মাষ্টমী উপলক্ষে বিভিন্ন মন্দির পরিদর্শন করেন। এসময় শিখন সরকার করোনার মহামারিতে সরকারের নির্দেশনা পালন করার অনুরোধ জানান।

সোমবার (৩০ আগস্ট) সকাল ১১টায় দেওভোগ শ্রী শ্রী রামসীতা গ্রিহ মন্দিরে বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদের নারায়ণগঞ্জ জেলা ও মহানগর শাখার উদ্যেগে কৃষ্ণের ৫হাজার ২শ’৪৭ তম জন্মাষ্টমীতে এ কৃষ্ণ পূজার আয়োজন করা হয়।

এর আগে সকাল সাড়ে ১০টায় চাষাঢ়া গোপাল জিউর বিগ্রহ মন্দিরে বাংলাদেশ গীতা পরিষদ নারায়ণগঞ্জ জেলা শাখার উদ্যেগে বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদ শিখন সরকার শিপনের উপস্থিতিতে দেশ ও জাতির মঙ্গল কামনায় গীতাপাঠ ও কৃষ্ণ পূজা করা হয়।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন, বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদের নারায়ণগঞ্জ মহানগর কমিটির সভাপতি আরুন কুমার দাস, বন্দর উপজেলার সাধারণ সম্পাদক শ্যামল বিশ্বাস, সিদ্ধিরগঞ্জ থানার শিশির ঘোষ অমর, বাংলাদেশ গীতা পরিষদ নারায়ণগঞ্জ জেলা শাখার আহবায়ক শ্যামল, সদস্য সচিব সঞ্জয় দাস, কৃষ্ণ আচার্য্য, দুলাল দাস, মানিক লাল কানুসহ নেতৃবৃন্দ।

জন্মাষ্টমীতে বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদ শিখন সরকার শিপন বলেন, বৈশ্বিক করোনা মহামারির কারণে সরকারের নির্দেশনা মেনে পরমেশ্বর ভগবান শ্রীকৃষ্ণের জন্মাষ্টমী পালন করছি। আমরা কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ ও নারায়ণগঞ্জ জেলার নেতারা একই সিদ্ধান্ত নিয়েছি। ভগবান শ্রী কৃষ্ণ জীবের কল্যানের জন্য উনি এসেছেন। সাধুদের রক্ষা ও অসুরদের ধ্বংস করার জন্য উনি পৃথিবীতে অবতরণ করেছেন। মূলত অপশক্তি বিনাশ করার জন্যই ওনার আগমন।

তিনি আরও বলেন, ‘বিগত সময়ে আপনারা দেখেছেন, আমরা এ দিনে প্রায় ৫০-৬০ হাজার মানুষের একটি সমাবেশ করি। করোনার সংক্রমণ বিস্তার যাতে না করে, তার জন্য এটি বাতিল করা হয়েছে। একমাত্র মন্দির কেন্দ্রিক পূজা পাঠ করা হবে। এছাড়া বিশ্বশান্তি উপলক্ষে প্রার্থনা করা হচ্ছে। সব কিছু মিলিয়ে আমরা চাই দেশে অসংস্কৃতি দূর হোক। সাম্প্রদায়িক শক্তি বিনষ্ট হউক। আমরা হিন্দু, মুসলিম, খ্রিষ্টান, বৌদ্ধ সবাই যাতে আমাদের ধর্মীয় উৎসব যথাযথ পালন করতে পারি। সকলকে শুভ জন্মাষ্টমীর শুভেচ্ছা।

0