সিদ্ধিরগঞ্জে অবৈধ গ্যাস সংযোগে বিপুল অর্থ হাতিয়ে নিয়েছে কারা?

0

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, লাইভ নারায়ণগঞ্জ : নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন (এনসিসি) ৪ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মোঃ আরিফুল হক হাসানের ঘনিষ্ঠজনদের বিরুদ্ধে অভিযোগ, প্রায় শতাধীক অবৈধ গ্যাস সংযোগ দিয়ে পঁচিশ লাখ টাকা হাতিয়ে নিয়েছেন তারা।

আটি-হাউজিং এলাকায় গ্যাস লাইনের সংযোগ নিতে হলে কাউন্সিলর হাসানের খালাতো ভাই শাহরিয়ার তপন ও কাউন্সিলরের সহযোগী মোস্তফা মিয়াসহ একটি সিন্ডিকেটকে দিতে হচ্ছে ত্রিশ হাজার টাকা, না দিলে মিলছে না গ্যাস লাইন। এলাকাবাসীর অভিযোগ, কেউ যদি এ ঘটনা জানায় তাহলে তার উপর অমানুষিক নির্যাতন চলাবে কাউন্সিলরের লোকেরা।

সিদ্ধিরগঞ্জের আটি-হাউজিং এলাকায় সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের অধীনে রাস্তা ও ড্রেন নির্মাণের কাজ চলছে। তারা রাস্তার পাশ দিয়ে গ্যাস লাইন থেকে রাতের আধারে চুরি করে অবৈধ ভাবে গ্যাসের সংযোগ দিচেছন বলে অভিযোগ করেছেন এলাকাবাসী।

এলাকাবাসী আরও অভিযোগ করেন, তিতাস গ্যাসের কোন কর্মকর্তাকে না জানিয়ে তারা অবৈধ ভাবে গ্যাস সংযোগ দিয়ে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নিচ্ছেন। শুধু তাই নয়, হাউজিং এলাকায় ভবন নির্মাণ করার সামগ্রী (ইট, বালু, সিমেন্ট,রড)সহ সকল সামগ্রী ওই সিন্ডিকেটের কাছ থেকেই নেওয়ার জন্য জোর করছে অভিযুক্তরা।

হাউজিং এলাকার ভাড়াটিয়া মনির হোসেন জানান, হাউজিং এলাকায় কোন জমি বিক্রি হলে তপন ও মোস্তফা সিন্ডিকেটকে দিতে হয় ৫ থেকে ৮ লাখ টাকা। জমির দাম যাই হউক জায়গা রেজিষ্টি হওয়ার আগেই এই বাহিনীর হিসাব আগেই চুকাতে হবে না হয় জমি রেজিষ্টি হবে না। তিনি বলেন, এই বাহিনীর কাছে এলাকাবাসী অসহায়।

হাউজিং এলাকার সুমাইয়া প্লাজার মালিক আবু হোসেন জানান, রাস্তা ১৬ ফুট প্রশস্ত করার কথা থাকলেও বিভিন্ন অযুহাত দেখিয়ে রাস্তা সাড়ে ১৫ ফুট করা হচ্ছে। তিনি বলেন, একাধারে ৪/৫ রাস্তা কেটে মানুষের দুর্ভোগ বাড়িয়ে তুলেছে। তিনি বলেন, অবৈধ ভাবে গ্যাস সংযোগ দিয়ে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নেওয়ার জন্যই তারা রাস্তাগুলো কেটে ফেলে রেখেছে।

কাউন্সিলর হাসানের মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলেও তিনি মোবাইল ফোনটি রিসিভ করেন নি। পরে তাকে মোবাইলে ম্যাসেজ পাঠালেও তিনি কোন প্রতি উত্তর করেন নি।

0