সিনহা ও ওপেক্স গ্রুপের শ্রম অসন্তোষ নিরসন করলেন সেলিম ওসমান

0

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: নারায়ণগঞ্জের কাঁচপুরে অবস্থিত সিনহা ও ওপেক্স গ্রুপের শ্রমিক চলে আসা নানান অসন্তোষের অবসান ঘটিয়ে তাদের বকেয়া বেতন পরিশোধের সহজ সমাধানের পথ বের করে দিয়েছে নীট গার্মেন্টস ব্যবসায়ীদের শীর্ষ সংগঠন বিকেএমইএ এর সভাপতি সেলিম ওসমান।


যদি শ্রমিকদের গত ৪ মাসের বকেয়া বেতন পরিশোধ করা সম্ভব নাও হয় তাহলে যেন আগামী ১৭ অক্টোবরের মধ্যে দুই মাসের বকেয়া বেতন পরিশোধের প্রস্তাব দিয়েছেন তিনি।

রোববার (৩ অক্টোবর) ঢাকায় শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রনালয়ে অনুষ্ঠিত এক সভায় তিনি প্রতিষ্ঠান দুটিকে কো-লেটারেলের মাধ্যমে ঋণের ব্যবস্থা করে দেওয়ার প্রস্তাবনার মাধ্যমে উক্ত সমস্যার সমাধানের পথ দেখিয়েছেন।

শ্রম ও কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী মুন্নুজান সুফিয়ান এর সভাপতিত্বে উক্ত সভায় উপস্থিত ছিলেন সিনহা ও ওপেক্স গ্রুপের চেয়ারম্যান আনিছুর রহমান সিনহা, শ্রম সচিব, কলকারখানা ও প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন অধিদপ্তরের মহা পরিচালক, শ্রম অধিদপ্তরের পরিচালক, নারায়ণগঞ্জের পুলিশ সুপার, নারায়ণগঞ্জ শিল্প পুলিশের পুলিশ সুপার, বিজিএমইএ’র নেতৃবৃন্দসহ সরকারী ও বেসরকারি বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের উচ্চ পদস্থ কর্মকর্তাগণ। বিকেএমইএ এর পক্ষে প্রতিনিধিত্ব করেন সংগঠনটির সভাপতি এ.কে.এম সেলিম ওসমান এমপি।

বিকেএমইএ সভাপতি সেলিম ওসমান এমপি গত চার মাসের সম্ভব না হলে কমপক্ষে গত দুই মাসের বকেয়া বেতন আগামী ১৭ অক্টোবরের মধ্যে পরিশোধের প্রস্তাব উত্থাপান করেন। সেই সাথে এ সমস্যা নিরসনে তিনি সভায় উপস্থিত উচ্চ পদস্থ ব্যাংক কর্মকর্তাদের প্রতি সহযোগিতার আহ্বান জানান।

কিন্তু সিনহা গ্রুপের অনুক‚ লে ব্যাংক অনেক ঋন দেওয়ায় নতুন করে ঋণ দেওয়া সম্ভব নয়। তাই বিকেএমইএ সভাপতি সেলিম ওসমান. এমপি কো লেটারেল মাধ্যমে ঋণের ব্যবস্থার বিষয়টি উত্থাপন করলে তা সভায় গৃহীত হয়। এক্ষেত্রে বিদ্যমান জটিলতা নিরসনে প্রয়োজনে অর্থমন্ত্রণালয় ও বাংলাদেশ ব্যাংকের সাথে আলোচনার প্রস্তাবও দেন তিনি।

সেই সাথে সিনহা ও ওপেক্স গ্রুপ যদি কারখানা পরিচালনা করে তবে বর্তমানে যে শ্রমিকরা কর্মরত আছেন তারাই যেনো নিয়োগ পায়, সিনহা ও ওপেক্স গ্রুপের প্রতি এই আহ্বান রাখেন তিনি। আর যদি কারখানা চালু রাখা সম্ভব না হয় তবে শ্রম আইন মোতাবেক শ্রমিকদের বকেয়া বেতন পরিশোধ করে কারখানা বন্ধের বিষয়টি উত্থাপন করলে সেটিও সভায় গৃহীত হয়।

সভাস্থলে উপস্থিত শ্রমিকদের তিনি সহনশীল হওয়ার পাশাপাশি জাতীয় স্বার্থ সংরক্ষণের আহ্বান জানান এবং একই সাথে দ্রুত সমস্যা সমাধানের জন্য সরকারসহ সংশ্লিষ্ট সকলের সদয় মনোভাব ও সহযোগিতা কামনা করেন। উক্ত প্রস্তাবগুলোর সাথে বেগম মন্নুজান সুফিয়ান একমত পোষণ করে সভা সমাপ্ত করেন।

0