সীতাকুন্ডে অগ্নিকান্ডের ঘটনায় সিপিবি’র মানববন্ধন

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: চট্টগ্রামের সীতাকুন্ডে অগ্নিকান্ডের ঘটনায় বিচার বিভাগীয় তদন্ত ও দায়ীদের বিচার, আহতদের সুচিকিৎসা, নিহতদের পরিবারকে সারাজীবনের আয়ের সমপরিমান ক্ষতিপূরণ প্রদান এবং গ্যাসের মূল্যবৃদ্ধির সিদ্ধান্ত প্রত্যাহার করার দাবিতে বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি (সিপিবি) নারায়ণগঞ্জ জেলা কমিটির উদ্যোগে মানববন্ধন হয়েছে।

সোমবার (৬ জুন) বিকেল ৫টায় নারায়ণগঞ্জ প্রেসক্লাব ভবনের সামনে ওই মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

মানববন্ধনে নেতৃবৃন্দ বলেন, রাসায়নিক পদার্থ রাখার রাষ্ট্রীয় আইন-কানুনের তোয়াক্কা না করে ক্যামিকেল বোঝাই কন্টেইনার সংরক্ষণের কারণে সীতাকুন্ডে ভয়াবহ অগ্নিকান্ডে মর্মান্তিক হতাহতের ঘটনা ঘটেছে। বহু মানুষ প্রাণ হারিয়েছ আহত হয়ে হাসপাতালে মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছে। কর্মক্ষেত্রের নিরাপত্তাহীনতার দায় সংশ্লিষ্ট দপ্তর ও সরকার এড়াতে পারে না। যে ধরনের রাসায়নিক পদার্থ ডিপোতে রাখার কারণে ভয়াবহ অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটেছে সে ধারনের রাসায়নিক পদার্থ ডিপোতে রাখার সরকারি কোন অনুমোদন ছিল না। আইনুসারে ডিপোতে অগ্নিনির্বাপনের যে ব্যবস্থা থাকার দরকার ছিল তা ছিল না। ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা ডিপো কর্তৃপক্ষের নিকট ডিপোতে রাখা পদার্থের বিবরণ জানতে চাইলে সেটাও জানানো হয়নি। ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা ঘটনাস্থলে রাখা রাসায়নিক পদার্থের বিবরণ আগেভাগে জানতে পারলে হয়তো এতো ক্ষয়ক্ষতি হতো না। ডিপোর মালিক চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা কমিটির নেতা। সরকারি দলের লোক হয়ে রাষ্ট্রীয় আইন লঙ্ঘন করে কিভাবে ডিপো পরিচালনা করলেন? এই ঘটনায় বিচার বিভাগীয় তদন্তের মাধ্যমে দায়ীদের চিহ্নিত করে বিচারের কাঠগড়ায় দাঁড় করিয়ে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দিতে হবে। আহতদের সুচিকিৎসা ও নিহতদের পরিবার কে সারাজীবনের সমপরিমান ক্ষতিপূরণ দিতে হবে।

নেতৃবৃন্দ আরও বলেন বাজারে নিত্যপণ্যের লাগামহীন উর্ধ্বগতির কারণে শ্রমিক মেহনতি সাধারণ মানুষ দিশেহারা। এই অবস্থায় সরকার গ্যাসের মূল্যবৃদ্ধির সিদ্ধান্ত নেওয়ায় আরেক দফা সকল জিনিসপত্রের মূল্যবৃদ্ধি পাবে। সরকারের এই গণবিরোধী সিদ্ধান্ত প্রত্যাহার করতে হবে। বাজারে নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসপত্রের দাম কমিয়ে শ্রমজীবী সাধারণ মানুষের ক্রয়ক্ষমতার মধ্যে আনতে হবে। শ্রমিক মেহনতি মানুষের আয় বাড়াতে হবে। মিরপুরে মজুরি বৃদ্ধির দাবিতে আন্দোলনরত শ্রমিকদের উপর জুট সন্ত্রাসীদের হামলা ও পুলিশী নির্যাতনের প্রতিবাদ জানিয়ে নেতৃবৃন্দ
অবিলম্বে জাতীয় নিম্নতম মজুরি ২০ হাজার টাকা ঘোষনা করার আহবান জানান। অন্যথায় সকল শ্রেণী পেশার সাধারণ মানুষদের নিয়ে সিপিবির নেতৃত্ব গণআন্দোলন গড়ে তুলে জনগণের দাবি আদায় করা হবে।

মানববন্ধনে বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি জেলা কমিটির সভাপতি হাফিজুল ইসলাম সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন, জেলা কমিটির সাধারণ সম্পাদক শিবনাথ চক্রবর্তী, সম্পাদক মন্ডলীর সদস্য আঃ হাই শরীফ, বিমল কান্তি দাস, শাহানারা বেগম, আব্দুস সালাম বাবুল, জেলা কমিটির সদস্য দুলাল সাহা, জাকির হোসেন, গার্মেন্ট শ্রমিক ট্রেড ইউনিয়ন কেন্দ্র জেলা কমিটির সভাপতি এম এ শাহীন ও সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন প্রমূখ।