সেই ‘দুধ চোর’বাবার পাশে দাঁড়ালো স্বপ্ন

0

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: সন্তানের ক্ষুধার যন্ত্রণা মেটাতে রাজধানীর স্বপ্ন সুপার শপ থেকে দুধ চুরী করেন এক বাবা। ধরা পরার পরা হন মারধরের-শিকার, শেষে পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়।তখন জানা যায়, তিন মাস ধরে চাকরী নেই, কিন্তু সন্তানের জন্য প্রয়োজন দুধ; তাই বাধ্য হয়ে চুরি করেছিলেন ওই বাবা। ঘটনাটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে বেশ তোলপাড় সৃষ্টি করে। আর ফেসবুক হতেই বাবার এ দুর্দশা নজরে আসে সুপার শপ স্বপ্নের। সেই বাবার পাশে দাড়াবে স্বপ্ন। রোববার সকালে সেই বাবার ইন্টারভিউ নেবে স্বপ্ন। যোগ্য হলে চাকরি পাবেন তিনি।

শনিবার (১১ মে) সন্ধ্যায় স্বপ্নের হেড অব মার্কেটিং তানিম করিম এই তথ্য জানান।

তিনি বলেন, স্বপ্নের নির্বাহী পরিচালক সাব্বির হাসান নাসিরের নির্দেশে সেই বাবা এবং বাচ্চার দায়িত্ব নেবে স্বপ্ন কর্তৃপক্ষ। আজ রাতে তার সঙ্গে দেখা করে রমজান মাসের জন্য যেসব নিত্য প্রয়োজনীয় সামগ্রী দরকার তা তাকে দেয়া হবে। রোববার সকালে নির্বাহী পরিচালক নিজে তার ইন্টারভিউ নেবেন। তিনি চাকরির যোগ্য হলে তাকে চাকরি দেয়া হবে।

১০ মে রাজধানীর বাকি সড়কে কর্তব্যরত থাকা অবস্থায় ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) সহকারী কমিশনার জাহিদুল ইসলাম বাচ্চার জন্য বাবার দুধ চুরির মতো হৃদয়বিদারক ঘটনার বর্ণনা দেন ফেসবুক পোস্টের মাধ্যমে। মুহূর্তেই তা ভাইরাল হয়ে যায়।

এর আগে, এ বিষয়ে এসি জাহিদুল বলেন, ‘ঘটনাটি আমার কাছে খুবই স্পর্শকাতর লেগেছে। নাম-পরিচয় রেখে তাকে ছেড়ে দিই। আমি যেটা করেছি মানুষ হিসেবে এমনটা করা খুবই স্বাভাবিক। আমি জানি একান্ত প্রয়োজন ছাড়া কেউ দুধের প্যাকেট চুরি করবে না।’

‘তিনি মালিবাগের হোসাফ টাওয়ারের একটি মোবাইলের দোকানে কাজ করতেন। ইতিমধ্যে সেই ব্যক্তিকে সাহায্যের বিষয়ে অনেকে আমার সঙ্গে যোগাযোগ করেছেন। শনিবার রাত ৮টায় তাকে আবারও আমার অফিসে ডেকেছি। দেখি তাকে একটি চাকরির ব্যবস্থা করে দিতে পারি কি-না’-যোগ করেন তিনি।

সূত্র: দেশ রূপান্তর

0