সেই ভূমিদস্যু জয়নালের মানববন্ধন

0

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, লাইভ নারায়ণগঞ্জ: কলেজের আঙ্গিনা, সড়ক, রেলওয়ে, কৃষি, পুকুর কিংবা কোন নিরীহ ব্যক্তির বাড়ি-এমন কোন শ্রেণির জমি বাদ নেই। যেখানে হাত পরেনি জয়নাল আবেদিন ওরুফে আল জয়নালের। এ তালিকায় বাদ পরেনি আইনজীবী কিংবা আওয়ামীলীগের প্রভাবশালী নেতাদের জমিও।

মঙ্গলবার (২৭ আগস্ট) এক মানববন্ধনে দাবি করা হচ্ছে- সেই জয়নাল আবেদীনের জমিই নাকি দখল করেছে ফকির নীট ওয়্যার। আর এ নিয়ে শহর জুড়ে শুরু হয়েছে হাস্যরস ও সমালোচনা।

বিকালে নারায়ণগঞ্জ প্রেসক্লাবের সামনে জয়নাল আবেদীনের মালিকানাধীন আল-জয়নাল গার্মেন্টাস এন্ড হোসিয়ারীর লেবার অফিসার গোলাম কাদির’র সঞ্চালনায় মানববন্ধনটি অনুষ্ঠিত হয়।

মানববন্ধনে বক্তারা শংকা প্রকাশ করে জানান, ফকির গ্রুপের লোকজন আমাদের জায়গা দখল করতে চাচ্ছে। গত ২১ আগষ্ট মধ্যরাতে ফকির নীট ওয়্যার লি: এর মালিক আক্তারুজ্জামানের পরোক্ষ মদদে সিকিউরিটি ইনচার্জ মনিরসহ ২০ থেকে ৩০জন আমাদের মালিকানা জমিতে প্রবেশ করে কেয়ার টেকার ও দারোয়ানকে মারধর করেছে।

এদিকে জয়নাল আবেদীন সর্ম্পকে যারা জানেন। তাদের অনেকেই বলছে, যে ব্যক্তি (জয়নাল আবেদীন) জীবিত মানুষকে মৃত দেখিয়ে আম মোক্তার নামা দলিল করে জমি দখল করতে পারে। তার জমি কিনা দখল করবে অন্য কেউ? এটাও বিশ্বাস করতে হবে।

জায়নাল আবেদীনের বিরুদ্ধে যত অভিযোগ:

কয়েক বছর আগে আইনজীবী সমিতির সভাপতি হাসান ফেরদৌস জুয়েলের বাবার জীবনের শেষ আয়ের টাকা দিয়ে ৪ শতাংশ জমি কিনেন। কিন্তু সেই জমির চার দিকের জমি কিনে জমিটি দখলের চেষ্টা করা হয়। প্রভাব খাটিয়ে জুয়েলের কাছে জমি ক্রয়ের প্রস্তাবও দিয়েছে জয়নাল।

অন্যদিকে, ২০১৮ সালের ৪ এপ্রিল জীবিত ব্যক্তিকে মৃত দেখিয়ে আম মোক্তার নামা দলিল করে জমি দখলের অভিযোগে জয়নাল আবেদীনসহ তার ৩ জন অনুগামীর বিরুদ্ধে গ্রেফতারী পরোয়ানা জারি করেন নারায়ণগঞ্জের চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট।

২০১৮ সালের ১০ অক্টোবর ফতুল্লায় কাতার প্রবাসীর স্ত্রীর জমি দখলের চেষ্টার অভিযোগ উঠে আল জয়নালের বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় নানা ধরনের হুমকি দেয়ার কারণে থানায় সাধারণ ডায়েরীও করা হয়।

এছাড়া নারায়ণগঞ্জ সরকারি মহিলা কলেজর সামনের জমি, রেলওয়ের জমিতে আল-জয়নাল মার্কেটসহ বিভিন্ন স্থানে জমি দখলের অভিযোগতো রয়েছেই।

0