সোনারগাঁয়ে রাতভর গণধর্ষণের ঘটনায় সেই ৫ জন রিমান্ডে

0

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, লাইভ নারায়ণগঞ্জ: সোনারগাঁয়ে অপহরণের পর রাতভর গণধর্ষণের ঘটনায় গ্রেপ্তারকৃত ৫ আসামীকে ৩ দিনের রিমান্ডে নিয়েছে পুলিশ।

বুধবার (৯ অক্টোবর) দুপুরে আসামীদের ৭ দিনের রিমান্ড চেয়ে আদালতে উঠায়। পরে শুনানী শেষে সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট ফাহমিদা খাতুন এর আদালত এ রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

রিমান্ডপ্রাপ্ত আসামিরা হলেন ব্রাম্মনবাওগা গ্রামের মুজিবুর রহমানের বখাটে ছেলে আবু সাইদ, রেহাজ উদ্দিনের ছেলে ইমরান, নবি হোসেনের ছেলে রনি, আবু সিদ্দিকের ছেলে আবুল হোসেন ও ভট্টু মিয়ার ছেলে মাসুদ।

ভুক্তভোগী মামলায় জানান, তিনি রূপগঞ্জের একটি গার্মেন্টসের শ্রমিক। সোমবার সন্ধ্যা ৬ টার ছুটির পর বাড়ি গাউছিয়া ফেরার জন্য একটি সিএনজিতে উঠেন। সিএনজিটিতে আগে থেকেই বসেছিলেন ধর্ষক জাহাঙ্গীর। গাউছিয়া যাওয়ার পর নামতে চাইলে জাহাঙ্গীর তাকে বাঁধা দেয়। পরে জাহাঙ্গীরের কথা মতো গাড়িটি চালিয়ে যায়। এসময় মুখে সাদা রঙের স্কচটেপ লাগিয়ে বিভিন্ন স্থানে ঘুরায়। সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে তালতলা এলাকায় হালিম মিয়ার ঘরে নিয়ে আটকে রাখে ভুক্তিভোগীকে। ওই সময় হালিম মিয়া বাড়িতে ছিলেন না। রাত সাড়ে তিনটার দিকে হালিম মিয়া বাড়িতে এসে এ অবস্থা দেখে পুলিশে খবর দেয়। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে ৫ ধর্ষককে গ্রেপ্তার করে ও ২ জন পালিয়ে যায়।

পুলিশ অসুস্থ ওই গার্মেন্ট কর্মীকে উদ্ধার করে নারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করে। চিকিৎসা শেষে মঙ্গলবার দুপুরে ওই গার্মেন্ট কর্মী সোনারগাঁ থানায় বাদি হয়ে ৭ জনের নাম উল্লেখ্য করে মামলা দায়ের করেন।

এবিষয়ে কোর্ট পুলিশ পরিদর্শক মো. আব্দুল হাই বলেন, আসামিরা গণধর্ষণ মামলায় অভিযুক্ত। মামলার সুষ্ঠু তদন্তের স্বার্থে বিজ্ঞ আদালতের নির্দেশে আসামিদের ৩ দিনের রিমান্ডে নেওয়া হয়েছে।

0