স্বাস্থ্য কর্মীর পরে পুলিশ সদস্যদের ঝুঁকি বেশি: ডি.আই.জি

0

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, লাইভ নারায়ণগঞ্জ: দেশের সর্বস্তরে করোনা ভাইরাসের আতঙ্ক। দেশের বর্তমান যে পরিস্থিতি তাতে একজন করোনা আক্রান্ত ব্যক্তির সেবা, চিকিৎসা ও রক্ষণাবেক্ষণের দায়িত্বের ক্ষেত্রে স্বাস্থ্য কর্মীদের পরপরই পুলিশ সদস্যদের ঝুঁকি বেশি। কার ঝুঁকি বেশি কারও কম, তা আমরা বিবেচনা করবো না। বাংলাদেশের পুলিশ গর্বের সাথে ১৯৭১ সাল থেকেই কাজ করে আসছে। বিভিন্ন সংকটে পুলিশই সব সময় জনগণের পাশে ব্যর্থহীন ভাবে পাশে থেকেছেন। কোন ভয়ই তাদের কখনো থামিয়ে রাখতে পারেনি। আপনারা মনে রাখবেন পুলিশ কিন্তু শুধু সেবায় নয় সাহসিকতায়ও অনন্য।

শুক্রবার (৪ এপ্রিল) দুপুরে করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে সকলকে সামাজিক দূরত্ব এবং সচেতন করতে চাষাড়া চত্বরে বিজয় স্তম্ভে এ কথা বলেন ঢাকা রেঞ্জ এর ডি.আই.জি হাবিবুর রহমান।

তিনি আরও বলেন, আজ সারাবিশ্ব এবং বিশ্ব মানবতা একটি ক্রান্তিকাল সময় অতিবাহিত করছে। আমাদের কাছে মনে হয় না পড়ালেখা করে বা বিশ্ব ইতিহাস দেখে জানতে পেরেছি। যে সারাবিশ্বের প্রায় সকল দেশের মানুষ কিভাবে একত্র হয়ে একটি সমস্যার মোকাবেলা করতে হয়। এটা বিশ্ববাসীর কাছে একেবারেই নতুন। সে হিসেবে আমি বলবো, বাংলাদেশ একটি সমস্যা সংকূল অবস্থা অতিক্রম করছে।

তিনি আরও বলেন, আমাদের দেশের তুলনায় অন্যান্য দেশের অবস্থা অনেক খারাপ বাংলাদেশের। ব্যবসা-বাণিজ্য যে দেশে বেশি, সেখান থেকে করোনা নামক এই ভাইরাসটি উৎপত্তি হয়েছে। এখন সে দেশটি নিয়ন্ত্রণে এসেছে। সে দেশটি নিয়ন্ত্রণে আসলেও এই করোনা ভাইরাস সারা বিশ্বে ছড়িয়ে পড়েছে। এ করোনা ভাইরাস থেকে দেশ ও জাতিকে রক্ষা করতে হলে, সকলকে ঝুঁকি মুক্তভাবে কাজ করতে হবে নিজ নিজ জায়গা থেকে। তাই সকলে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখে কাজ করবেন।

এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন- জেলা পুলিশের সদস্য, পুলিশ সুপারসহ অতিরিক্ত ও সহকারী পুলিশ সুপার, বিভিন্ন থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ও র‌্যাবের সদস্যবৃন্দরা।

0