স্বৈরাচার প্রতিরোধ দিবসে প্রগতিশীল ছাত্র জোটের মিছিল

0

স্টাফ করেসপন্ডেট, লাইভ নারায়ণগঞ্জ : স্বৈরাচার প্রতিরোধ দিবস উপলক্ষে আজ শুক্রবার সকাল ১১ টায় নারায়ণগঞ্জ কেন্দ্রীয় শহিদ মিনারে সমাবেশের শুরুতে শহিদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে পুষ্পমাল্য অর্পণ করেন প্রগতিশীল ছাত্র জোট নারায়ণগঞ্জ জেলা।

সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন প্রগতিশীল ছাত্র জোট নারায়ণগঞ্জ জেলার সমন্বয়ক ও সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট নারায়ণগঞ্জ জেলার সভাপতি সুলতানা আক্তার। বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়ন কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সম্পাদক সুমাইয়া সেতু, সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট নারায়ণগঞ্জ জেলার সাধারণ সম্পাদক বেলাল হোসাইন, বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়ন নারায়ণগঞ্জ জেলা সংসদের সাধারণ সম্পাদক ইবনে সানি, সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট নারায়ণগঞ্জ জেলার অর্থ সম্পাদক মুন্নি সরদার।

নেতৃবৃন্দ বলেন, ১৯৮৩ সালের ১৪ ফেব্রুয়ারি স্বৈরাচার এরশাদ সরকারের শিক্ষানীতি বাতিলের দাবিতে আন্দোলনে জাফর, জয়নাল, দীপালি, কা নসহ নাম না জানা আরো অনেকে শহিদ হন। তার পর থেকে এদেশের ছাত্রসমাজ এই দিনটিকে স্বৈরাচার প্রতিরোধ দিবস হিসেবে পালন করে আসছে। নেতৃবৃন্দ আরো বলেন বর্তমান সরকারের স্বৈরাচারিতা এরশাদ সরকারকে ছাপিয়ে গিয়েছে। দেশের শিক্ষাব্যবস্থাকে উদ্দেশ্যমূলক ভাবে বাণিজ্যে পরিণত করেছে। শিক্ষাব্যবস্থা চলছে “টাকা যার শিক্ষা তার” এই নীতির ভিত্তিতে। আরেক দিকে সরকার সাম্প্রদায়িকতার বিষবাষ্পকে পাঠ্যপুস্তকের মাধ্যমে কোমলমতি শিশুদের মাঝে ছড়িয়ে দেওয়ার অপপ্রয়াস চালাচ্ছে। সরকার যেকোনো গণতান্ত্রিক আন্দোলনকে দমনের জন্য রাষ্ট্রীয় বলপ্রয়োগের নীতি গ্রহণ করেছে ।

নেতৃবৃন্দরা আরো বলেন, ভিন্নমত হলেই তার উপরে নেমে আসে আক্রমন; যেটা আমরা দেখেছিলাম মজিদ খান শিক্ষানীতি বাতিলের সেই আন্দোলনে স্বৈরশাসক এরশাদ সরকার করেছিলেন। বর্তমানেও স্বৈরশাসক বলবৎ আছে। যেটা আমরা বিশ^বিদ্যালয়গুলোর দিকে তাকালেই দেখতে পাই। একদিকে শিক্ষার বাণিজ্যিকীকরণ-বেসরকারীকরণ চলছে অন্যদিকে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রসাশনের ছত্র ছায়ায় ছাত্রলীগ সন্ত্রাসী, লাঠিয়াল বাহিনীতে পরিনত হয়েছে।

0