৯ দিন পর মুখ খুললেন আনোয়ার ‘খোকাকে ক্ষমা করে দিলাম’

0

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, লাইভ নারায়ণগঞ্জ: ‘আমি খোকাকে ক্ষমা করে দিলাম। খোকা তোমার যদি কোন দিন, অনুশোচনা আসে, তাহলে আল্লাহর কাছে ক্ষমা চেয়ে নিও।’

জাতীয়পার্টির নেতা ও নারায়ণগঞ্জ-৩ আসনের সংসদ সদস্য লিয়াকত হোসেন খোকাকে উদ্দেশ্য করে জেলা পরিষদের এক অনুষ্ঠানে এ ভাবেই কথা গুলো বলছিলেন আওয়ামীলীগ প্রবীন নেতা ও জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন।

গত ১৭ নভেম্বর সোনারগাঁ জি.আর ইনস্টিটিউশন স্কুল এন্ড কলেজের প্রধান ফটকে সাঁটানো নারায়ণগঞ্জ জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেনের নামে লাগানো নাম ফলকটি ভাঙ্গা হয়। এ ঘটনায় অভিযোগের আঙ্গুল তোলা হয় নারায়ণগঞ্জ-৩ আসনের সংসদ সদস্য লিয়াকত হোসেন খোকার বিরুদ্ধে। এরপর দিন থেকেই ঘটনায় আওয়ামী লীগ বিক্ষোভ করেছেন। এর প্রতিবাদে ২৪ নভেম্বর লিয়াকত হোসেন খোকার পক্ষে সভা করেন উপজেলা জাতীয় পার্টি ও অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরাও।

আনোয়ার হোসেনের ভাষ্য, ‘হয়তো তুমি নির্দেশ দিয়েছ, বাস্তবায়ন করেছে তোমার ক্যাডাররা। গত ১৭ নভেম্বর একটি দুঃখজনক ঘটনার প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। এরপর আমার পক্ষ থেকে কোন মুখ খোলা হয়নি। আজ বলছি, লিয়াকত হোসেন খোকা, তুমি অত্যন্ত ছোট মানুষ। আমারও বয়সে অনেক ছোট। এখনও এমপি হওয়ার মতো যোগ্য লোক তুমি হয়ে উঠো নাই। শেখ হাসিনার বদৌলতে জোটের থেকে তুমি এমপি হয়ে গেছো। বয়স অল্প, পদ পেয়ে গেছো অনেক বড়।’

আনোয়ার হোসেন বলেন, ‘তুমি ভুল করেছ, সেই ভুলের ক্ষমা চাওয়া তোমার উচিৎ ছিল। কিন্তু করো নাই। মহান রব্বুল আলামিন তোমায় হেদায়াত করুক। আমার কাছে ক্ষমা পার্থনা চাওয়া দরকার নাই। আমি খোকাকে কোন অভিশাপ দিচ্ছি না। আমি খোকাকে খারাপ বলছি না। খোকার কৃতকর্মের জন্য, নিজেরই সংশোধনের সময় আসবে। হয়তো ক্ষমা একদিন চাইতেও হবে।’

0