টার্গেট শরীরের কিডনী: বন্দরের যুবককে ভারতে বিক্রি, থানায় অভিযোগ

0

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: নারায়ণগঞ্জ বন্দরে ভালো বেতনে চাকুরীর প্রলোভন দেখিয়ে আহাম্মদ শরিফ (৩১) নামে এক যুবককে বিদেশে অবৈধভাবে পাচার করার অভিযোগে কথিত আদম ব্যবসায়ী মান্নান মিয়া নামক এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে বন্দর থানায় মামলা হয়েছে।


সোমবার ( ১৮ জানুয়ারী ) রাতে প্রতারনার শিকার আহমেদ শরিফের ভাই শরিফ বাদী হয়ে মান্নানকে আসামী করে একটি মানব পাচার মামলা করা হয়। যার মামলা নং ১৭(০১)২১ইং।

মামলা সুত্রে জানা গেছে, সিলেট জেলার জকিগঞ্জ থানাধীণ গদাদর গ্রামের ছামসুল হকের ছেলে আহাম্মদ শরিফ(৩১) এর সাথে ফেসবুকের মাধ্যমে ভ্রাম্মনবাড়িয়া জেলার বিজয় নগর থানাধীণ তিনপাশা গ্রামের মৃত রুস্তম খাঁ মিয়ার ছেলে আব্দুল মান্নান মিয়ার সাথে পরিচয় হয়। বর্তমানে মদনপুর ইউনিয়নস্থ হাজী কাদের মিয়ার বাড়ির ভাড়াটিয়া আদম ব্যাপারী আব্দুল মান্নান মিয়া। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পরিচয়ের সুবাদে মান্নান মিয়া আহাম্মদ শরিফকে ভারত হয়ে দুবাই পাঠানোর জন্য তার ভাই শরিফের সাথে চুক্তিবদ্ধ লিপিবদ্ধ করে। এরই ধারাবহিকতায় গত ২২ডিসেম্বর বন্দর থানার মদনপুর মার্কেন্টাইল ব্যাংকের সামনে সকাল ১০টায় আদম বেপারী মান্নান মিয়া আহাম্মদ শরিফকে মোবাইলে আসতে বলে।

আরো জানা যায়, পরবর্তিতে আহাম্মদ শরিফকে দুবাইয়ের উদ্দেশ্যে পাঠিয়ে দেওয়ার পর গত ১৭জানুয়ারী সকাল ১১টায় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ইমুর মাধ্যমে আহমেদ শরিফ তার ভাই শরিফকে ফোন দেয়। প্রবাসে থাকা আহমেদ শরিফ তার ভাইকে জানায়,আমি ভারতের উত্তর প্রদেশে সেক্টর নাম্বর ১১ এর একটি হাসপাতালে আছি। এখাকার একটি মানব পাচার চক্র দুবাই পাঠাবার নাম করে আমাকে হাসপাতালে এনে আমার শরীরের কিডনী বিক্রি করবে। আমাকে বাচাও ভাই। আমাকে দেশে ফেরত নিয়ে যাও।

মোবাইলে ইমুতে আহমেদ শরিফ তার ভাই শরিফের সাথে এমন কথোপকথনের পর সোমবার রাতেই ওই কথিত আদম ব্যবসায়ী মান্নান মিয়ার বিরোদ্ধে মানব পাচার প্রতিরোধ দমন আইনে একটি মামলা দায়ের করা হয়।

এ বিষয়ে বন্দর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) ফখরুদ্দিন ভুইয়া জানান, মদনপুর থেকে ভুক্তভোগি মান্নান মিয়াকে দুবাই যাওয়ার চুক্তি করে তাকে ভারতে পাচার করে দেয়া হয়অ এ বিষয়ে আমাদের থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। এবং ভুক্তভুগি বর্তমানে ভারতের এক হাসপাতাল থেকে পালিয়ে ভারতিয় পুলিশের কাছে সংরক্ষিত আছে।

0