আইভীর সম্প্রীতির মানববন্ধন, মুখ ফিরিয়ে নিয়েছে হিন্দু সমাজ

0

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: সিটি মেয়র সেলিনা হায়াৎ আইভীর সাম্প্রদায়িক স¤প্রীতি ও শান্তির পক্ষে আয়োজিত কথিত মানববন্ধনে যোগ দেয়নি নারায়ণগঞ্জের হিন্দু সমাজ। শনিবার সকালে নগরীর চাষাড়া থেকে মন্ডলপাড়া পর্যন্ত তিন কিলোমিটার এলাকাজুড়ে মানববন্ধন করার কথা থাকলেও শুধু মাত্র ২নং রেলগেইট এলাকায় কিছু সংখ্যক আইভী পন্থি সমর্থক ও দলীয় নেতা-কর্মী ছাড়া পুরো এলাকাই ছিলো ফাঁকা। সম্প্রীতির এই মানববন্ধনে দেখা যায়নি নারায়ণগঞ্জের হিন্দু সমাজের নেতৃবৃন্দ এমনকি সনাতন ধর্মের সাধারণ মানুষও এই সমাবেশ বয়কট করেছে।

এদিকে স্থানীয় সনাতম ধর্মের নেতৃবৃন্দরা জানায়, মেয়র আইভী ও তার পরিবার হিন্দু সম্প্রদায়ের শত কোটি টাকার দেবোত্তর সম্পত্তি দখল করে রেখেছে। এই সম্পত্তি ফিরে পেতে আমরা আন্দোলন সংগ্রাম করে যাচ্ছি। মাননীয় প্রধাণমন্ত্রীর কাছেও স্মারকলিপি দিয়েছি। আওয়ামী লীগ গণমানুষের দল। এখানে কোন ভূমিদস্যুদের স্থান নেই। আমরা মেয়র আইভীর কাছে দাবি রেখে সময় দিয়েছিলাম তিনি ও তার পরিবার যেন দেওভোগের দেবোত্তর সম্পত্তি জিউস পুকুরের দখল ছেড়ে দেন। কেননা দেবোত্তর সম্পত্তি বিক্রির কোন আইন নেই। তারপরও তিনি নিজের পরিবারের দখলে থাকা জিউস পুকুর দখলের বিষয়টি কৌশলে বিষয়টি এড়িয়ে যাচ্ছেন। এখন তিনি সাম্প্রদায়িক দাঙ্গার ধোয়া তুলে নিজেই নারায়ণগঞ্জে হিন্দু-মুসলিম দাঙ্গা লাগাতে চান। যেন তাদের দখল করা সম্পত্তি রক্ষা পায়। কিন্তু নারায়ণগঞ্জের মানুষ অসাম্প্রদায়িক। এখানে হিন্দু-মুসলিম ভাই ভাই। কয়েকদিন আগেও যখন কুমিল্লার ঘটনা নিয়ে সারাদেশ উত্তপ্ত ছিলো তখনও নারায়ণগঞ্জে পরিস্থিতি ছিলো স্বাভাবিক। আমরা নির্দিধায় বসবাস ও চলাফেরা করে আসছি। নারায়ণগঞ্জ আমাদের সবার।

মানববন্ধন তথা ২নং রেলগেটের সভায় মেয়র আইভী বলেন, নারায়ণগঞ্জে অসম্ভব অসা¤প্রদায়িক চেতনায় বিশ্বাসী মানুষের বসবাস। স¤প্রীতির শহর এই নারায়ণগঞ্জ। অথচ এই নারায়ণগঞ্জে যারা স¤প্রীতির কথা বলে জাতীয় স্বার্থকে বাদ দিয়ে ব্যক্তি আইভীকে নিয়ে রাজনীতি করেন তাদেরকে ধিক্কার জানাই।

তিনি বলেন, শহীদ মিনারের মতো পবিত্র জায়গায় দাঁড়িয়ে যারা মিথ্যাচার করে তারাই এই সা¤প্রদায়িক দাঙ্গা লাগানোর জন্য উসকানি দিচ্ছে। নারায়ণগঞ্জে বিগত এক বছর যাবৎ অত্যন্ত সুপরিকল্পিতভাবে চক্রান্ত করে সা¤প্রদায়িক দাঙ্গা লাগানোর চেষ্টা করা হচ্ছে। আমি তাদেরকে সাবধান করে দিতে চাই। এই সম্প্রীতির শহরে রাজনৈতিক কারণে ব্যক্তি আইভীর বিরুদ্ধাচরণ করতে ষড়যন্ত্র করার জন্য হিন্দুদের মধ্যে বিভেদ তৈরি করবেন না।

সিটি মেয়র ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভীর সভাপতিত্বে এই মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন নারায়ণগঞ্জ মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন, আওয়ামী লীগের জাতীয় পরিষদ সদস্য আনিসুর রহমান দিপু, জেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি আবদুল কাদির, আদিনাথ বসু, আসাদুজ্জামান, যুগ্ম সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম, সাংগঠনিক সম্পাদক আবু সুফিয়ান, জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের আহ্বায়ক নিজাম উদ্দিন আহমেদ, জেলা যুবলীগের সহ সভাপতি আহাম্মদ আলী রেজা রিপন, মহানগর যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক আহাম্মদ আলী রেজা উজ্জ্বল, আহলে সুন্নাত ওয়াল জামাতের আবু জাফর, জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সাবেক সভাপতি শঙ্কর সাহা, নারায়ণগঞ্জ সাংস্কৃতিক জোটের সভাপতি ভবানী শঙ্কর রায়সহ সিটি কর্পোরেশনের কাউন্সিলর, স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদের নেতৃবৃন্দ, আওয়ামী লীগ ও অঙ্গসংগঠনের নেতা-কর্মীরা।

0