আনন্দ উল্লাসে ডি.আর.ইউ ও না.গঞ্জ ক্লাবের প্রীতি ম্যাচ

স্টাফ করেপসপন্ডেন্ট, লাইভ নারায়ণগঞ্জ: দুপুরের কড়া রোদের তাপ প্রবাহ বন্ধ হওয়ার সাথে সাথেই ছড়িয়ে গিয়েছে গৌধূলির আলোতে নারায়ণগঞ্জ ওসমানী পৌর স্টেডিয়াম। বিকাল গড়াতেই খেলার মাঠে জড়ো হয়েছেন নারায়ণগঞ্জের ঐতিহ্যবাহী নারায়ণগঞ্জ ক্লাবের সদস্যগণ, তার সাথে যুক্ত হয়েছেন দেশের অন্যতম সংগঠন ঢাকা রিপোটার্স ইউনিটির কলম যোদ্ধারা। আয়োজন ছিলো একটি প্রীতি ফুটবল ম্যাচ। তাদের এই প্রীতি ম্যাচ দেখতে স্টেডিয়ামের চারপাশে ছিলো শাতাধিক দর্শকের আগমন।

উৎসব মূখর এই খেলায় টান টান উত্তেজনা না থাকলেও দুই পক্ষের খেলায় ছিলো প্রতিযোগীতার আভাস। খেলার শুরুতেই টসে জিতে নারায়ণগঞ্জ ক্লাবের টিমের পায়ে ছিলো বল। দুই পক্ষের আক্রমনে মাঠ হয়ে উঠে জমজমাট। বল পাস ও প্রতিপক্ষের আক্রমনে বার বার মাঠের দর্শকের মনে সাড়া তুলেছে। দর্শকরাও মেতে উঠেছে প্রীতি ফুটবল ম্যাচটিতে। ৪০ মিনিটের খেলায় ২ গোল করে এগিয়ে ছিলো নারায়ণগঞ্জ ক্লাবের টিম। অর্ধবিরতি শেষ করে ঢাকা রিপোটার্স ইউনিটিও গোলের বক্সে বল নিতে সক্ষম হয়। নারায়ণগঞ্জ ক্লাবের আয়োজিত প্রীতি ম্যাচটি ছিলো মূলত সকলের একত্রিত একটি মিলনমেলা।

শুক্রবার (২৩ সেপ্টেম্বর) বিকেলে খেলা শেষে ঢাকা রিপোর্টাস ইউনিটিকে বিজয়ী করে, তাদের টিমের ক্যাপ্টেনের কাছে বিজয় ট্রফি তুলে দেন, প্রধান অতিথি বিসিবি মিডিয়া সেল’র চেয়ারম্যান ও নারায়ণগঞ্জ জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক তানভীর আহমেদ টিটু এবং নারায়ণগঞ্জ ক্লাবের সভাপতি আসিফ হাসান মাহমুদ মানু। এ সময় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা রিপোর্টাস ইউনিটি সভাপতি নজরুল ইসলাম মিঠু।

এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন, ঢাকা রিপোর্টাস ইউনিটি সাধারণ সম্পাদক নুরুল ইসলাম হাসিব, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক কামাল উদ্দিন সুমন  নারায়ণগঞ্জ ক্লাবের সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট ফয়েজ উদ্দিন লাভলু, বিপিজেএ কেন্দ্রীয় কমিটির সাবেক সভাপতি ও নারায়ণগঞ্জ ক্লাবের সদস্য শফিউদ্দিন আহম্মেদ বিটুসহ নারায়ণগঞ্জ ক্লাব ও ঢাকা রিপোটার্স ইউনিটির নেতৃবৃন্দ।

বিসিবি মিডিয়া সেল’র চেয়ারম্যান ও নারায়ণগঞ্জ জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক তানভীর আহমেদ টিটু বলেন, এরকম খেলার মাধ্যমে একটি সংস্থার সাথে আরেকটি সংস্থার সেতুবন্ধন সৃষ্টি হয়ে থাকে। আমরা সবাই নিজ নিজ কাজ নিয়ে এতো ব্যস্ত থাকি, তাতে আমাদের লাইফের রিক্রিয়েশন গুলো কমে যায়। ছোট বেলার মতো যখন তখন মাঠে চলে যাওয়ার সুযোগটি আমরা পাই না। যখনই সেই সুযোগটি তৈরি করা হয়, তাদের সেই অবদান স্মরণীয় করে রাখার জন্য আমরা সেই চেষ্টাটা করি।

অনুষ্ঠানে ঢাকা রিপোর্টাস ইউনিটি সভাপতি নজরুল ইসলাম মিঠু বলেন, আমি ধন্যবাদ জানাই নারায়ণগঞ্জ ক্লাবকে, কারণ তারা ঢাকা রিপোর্টাস ইউনিটিকে এমন একটি খেলার জন্য আমন্ত্রণ করেছেন। এবং সেখানে রিপোটার্স ভাইয়েরা অংশগ্রহন করেছেন। এটা খুবই ভালো লেগেছে। এই খেলার মাধ্যমে আমাদের সম্প্রীতির যাত্রা শুরু হয়েছে। আপনারা, যে আন্তরিকতা ও সম্প্রীতি দেখিয়েছেন তার জন্য আমরা কৃতজ্ঞ।