আমার বিরুদ্ধে দুর্নীতি পেলে লিড নিউজ করুন, আমি মিষ্টি খাওয়াবো: এমপি খোকা

0

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, লাইভ নারায়ণগঞ্জ: জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য, ঢাকা বিভাগীয় অতিরিক্ত মহাসচিব ও নারায়ণগঞ্জ-৩ আসনের সংসদ সদস্য লিয়াকত হোসেন খোকা বলেছেন, বঙ্গবন্ধুর প্রতি ভালোবাসা রেখে আজকে এই আয়োজন যারা করেছে তাদেরকে আমি ধন্যবাদ জানাই।  আল্লাহপাক বঙ্গবন্ধুকে আমাদের কাছে পাঠিয়েছেন বলে আমাদের ভাষা, আমাদের সংস্কৃতি, আমাদের স্বাধীনতা সর্বপরি আমরা বাংলাদেশী বলে দাবি করতে পারি। আমার রাজনীতি শুরু করি ১৯৭৮ থেকে। বাংলাদেশের ভাষা আন্দোলন, স্বাধীনতা সংগ্রামে সক্রিয় ভুমিকার যারা ছিলেন তাদের মধ্যে একটি হলো ওসমান পরিবার। সেই পরিবারের সন্তান শামীম ওসমানের সাথে ছাত্রলীগ করেছিলাম। আমরা একটা বৃহৎ চক্রান্তু থেকে বের হয়ে এসেছি। চক্রান্ত এখনো আছে, স্বাধীনতার বিরুদ্ধে চক্রান্ত এখনো শেষ হয়ে যায়নি। আর এই চক্রান্ত আমাদের মধ্যেই আছে। বঙ্গবন্ধু আমাদের বুঝাতে সক্ষম হয়েছে যে, এই স্বাধীনতা তার একা জন্য না। এই স্বাধীনতা দেশের মানুষের জন্য, স্বাধীনতা এই জাতির জন্য, প্রত্যাকটা পেশাজীবি মানুষের জন্য। স্বাধীনতার পর মুক্তিযোদ্ধার লেবাস লাগিয়ে অনেক অকারেন্স করেছে।


শনিবার (২৫ সেপ্টেম্বর) বিকালে শহরের আলী আহাম্মদ চুনকা নগর পাঠাগার ও মিলনায়তন ভবনের ৫ম তলায় ২ দিনব্যাপী ‘অ্যান্টিক প্রথম আলোকচিত্র প্রতিযোগীতা’ পুরুষ্কার বিতরণ ও প্রদর্শনী উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্ত্যবে তিনি এসব কথা বলেন।

এমপি খোকা বলেন, সাংবাদিকদের বলবো সত্য নিয়ে হাটেন, আপনারা কিন্তু একটা দ্বায়িত্বে আছেন। ইন্টেনশনালী নিউজ করবেন না। সব কিছুর বাইরে আল্লাহকে তো মানেন, তাকে তো ভয় করেন। ধরুন, আমার বিরুদ্ধে একটা অসত্য নিউজ করলেন। আমি এটা পরে প্রতিবাদ দিলাম বা সত্য নিউজ দিলাম। কিন্তু আমার তো একটি পরিবার আছে, আমাকে কেনো ঘায়েল করবেন। যখন সেই পরিবারের সন্তান স্কুলে যাবে তখন তো মানুষ বলবে তোমার বাবা চোর, তোমার বাবা খারাপ। এই সন্তানকে আপনি কি উত্তর দিবেন। আপনার কি অধিকার আছে আমাকে ছোট করার বা আমাকে ঘায়েল করার।

তিনি আরও বলেন, আমি সাংবাদিকদের বলবো আমার বিরুদ্ধে যদি কোন দুর্নীতি পান তাহলে সেটা লিড নিউজ করুন। আমি তোমাদের মিষ্টি খাওয়াবো। কিন্তু ইন্টেশনালী আমাকে ঘায়েল করার জন্য নিউজ কইরো না। তোমার যেমন কলমের জোর আছে আমারও জনতার জোর আছে, সততার জোর আছে।

এ সময় শিক্ষানুনরাগী কাসেম জামালের সভাপতিত্বে ও নারায়ণগঞ্জ জেলা সাংবাদিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক আমির হোসাইন স্মিথের সঞ্চালনায় আরও উপস্থিত ছিলেন, বিকেএমইএ’র প্রথম সহ-সভাপতি মোহাম্মদ হাতেম, বাংলাদেশ ফটোগ্রাফি ইনস্টিটিউটের সাবেক অধ্যক্ষ ও এফবিপিএস সম্মানপ্রাপ্ত আব্দুল মালেক বাবুল ও সিনিয়র আলোকচিত্র সাংবাদিক বুলবুল আহমেদ, রয়র্টাসের সিনিয়র ফটো সাংবাদিক এবিএম রফিকুর রহমান, বিশিষ্ট লেখক তারাপদ আচার্য, বাংলাদেশ এমপ্লয়িজ এসোসিয়েশনের সহ-সভাপতি লোকমান আহমেদ, নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের কাউন্সিলর নাজমুল আলম সজল, হাজী আব্দুর রউফ মেমোরিয়াল ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান লুৎফা বেগম, জেলা সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি আব্দুস সালাম, সিনিয়র ফটো সাংবাদিক প্রনব কৃষ্ণ রায় প্রমুখ।

0