আ.লীগ নেতা হত্যা মামলার আসামী ইয়ানুছ ডাকাত ফতুল্লায় গ্রেপ্তার

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: আড়াইহাজার উপজেলার ত্রাস, একটি হত্যা মামলার সাজা প্রাপ্ত ও ডাকাতি, বিষ্ফোরকসহ ৬টি মামলার ওয়ারেন্ট ভুক্ত পলাতক আসামী ইয়ানুস ওরফে ইউনুস ডাকাত (৫৫) কে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশের এন্টি টেররিজমের একটি চৌকস ইউনিট।

সোমবার (৯ মে) রাত সোয়া ৮টায় ফতুল্লার এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। পুলিশের এন্টি টেররিজমের (এটিইউ) অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. আলমগীরের নেতৃত্বে ওই অভিযান পরিচালনা করা হয়েছে বলে জানায় পুলিশ।

গ্রেপ্তারকৃত ইয়ানুস ওরফে ইউনুস ডাকাত আড়াইহাজার উপজেলার ব্রাহ্মন্দী ইউনিয়নের ব্রাহ্মন্দী গ্রামের বাসিন্দা এবং ওই এলাকার মৃত আবুল বাশারের ছেলে।

জানা যায়, গ্রেপ্তার ইয়ানুস ২০০০ সালে উপজেলার ব্রাহ্মন্দী গ্রামের আওয়ামী লীগ নেতা নান্নু হত্যা মামলার যাবজ্জীবন সাজা প্রাপ্ত আসামী। এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন ওই ঘটনায় নিহত নান্নুর ছেলে বিল্লাল।

আড়াইহাজার থানা পুলিশ জানায়, আওয়ামী লীগ নেতা নান্নু হত্যা মামলা ছাড়াও ইয়ানুসের বিরুদ্ধে আড়াইহাজার থানায় ডাকাতি, বিষ্ফোরকসহ ৬টি মামলার গ্রেপ্তারী পরোয়ানা রয়েছে। তাকে গ্রেপ্তারের জন্য পুলিশ দীর্ঘ দিন যাবত আপ্রাণ চেষ্টা করে আসছিল। কিন্তু ভয়ংকর ও সুচতুর ইয়ানুস বর্তমানে ইউসুফ নামে পরিচিত হয়ে ফতুল্লার একটি এলাকায় বসবাস করে গাড়ী চালকের কাজ করে আসছিল। এর আগে আড়াইহাজার থানা পুলিশ তাকে পাকরাও করলেও পুলিশের উপর আক্রমন করে সে পালিয়ে যেতে সক্ষম হয়। সে এলাকা থেকে গা ঢাকা দিলেও প্রায় রাতেই সে তার দল নিয়ে আড়াইহাজারসহ বিভিন্ন এলাকায় ডাকাতি জড়িত ছিল বলে পুলিশ সূত্রে জানা যায়। বেশ কয়েক বছর আগে ডাকাত সর্দার ইউনুছ বোমা বানাতে গিয়ে বিস্ফোরনে তার বাম চোঁখ হারান বলে স্থানীয় লোকজন জানান।

আড়াইহাজার থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আনিচুর রহমান মোল্লা জানান, তাকে আগের মামলা গুলোর ওয়ারেন্টের ভিত্তিতে আদালতে প্রেরন করা হয়েছে।