উন্নয়ন ধরে রাখতে চায় আ.লীগ, বিএনপি চায় ‘ছিনিমিনি বন্ধ করতে’

0

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: জমে উঠেছে নারায়ণগঞ্জ জেলা আইনজীবী সমিতির কার্যকরী পরিষদের নির্বাচন। আওয়ামীলীগ প্রার্থীদের নির্বাচনী প্রচারণায় সরগরম পুরো আদালতপাড়া। প্রার্থীদের পাশাপাশি তাদের পক্ষে প্রচারণায় নেমেছেন সাবেক আইনজীবী নেতারাও।

মঙ্গলবার (১৯ জানুয়ারি) নারায়ণগঞ্জ আদালতপাড়ায় আইনজীবীদের প্রচারণায় সরগরম আদালতপাড়া। চারপাশে মুখরিত শ্লোগানে শ্লোগানে। চলছে কুশল বিনিময়। আদালতপাড়া জুড়ে চলছে গণসংযোগও।

নারায়ণগঞ্জ আইনজীবী সমিতির নির্বাচনে প্রচারণা চালাচ্ছে আওয়ামী লীগ সমর্থিত সম্মিলিত আইনজীবী সমন্বয় পরিষদ। দ্বিতীয় দিনে প্রার্থী ও প্যানেল প্রচারণা চালালেও এবার প্রার্থীদের পাশাপাশি প্রচারণায় নেমেছেন দলের সাবেক আইনজীবী নেতারা। এ সময় তারা শোডাউন এবং লিফলেট বিলির মাধ্যমে প্রচারণা করেন।

প্রচারণা শেষে নবনির্মিত ডিজিটাল বার ভবন প্রাঙ্গণে জেলা আইনজীবী সমিতির সাবেক সভাপতি হাসার ফেরদাউস জুয়েল বলেন, আমি বিশ্বাস করি আইনজীবীরা অতিতে সিদ্ধান্ত নিতে ভুল করেনি ২৮ তারিখে নির্বাচনেও ভুল করবে না। গতকাল একটি ঘটনা ঘটেছিলো আমরা এর তীব্র নিন্দা জানিয়েছিলাম। আমরা খুবি হতাশ হয়েছিলাম যে চেয়ারে আইনজীবীদের পেশার স্থল, যে চেয়ারে বসে দেশের মানুষের সেবা করি, সে চেয়ারের মধ্যে জুতো পায়ে দাঁড়িয়ে আমাদের সভাপতি প্রার্থী বক্তব্য দিয়েছেন। আমাদের প্রার্থী সেটি মুছে দিয়েছেন, এতেই বুঝা যায় নেতৃত্বে ব্যবধান আর লিডারশীপের ব্যবধান। আপনারা কাকে নির্বাচিত করবেন যে আপনাদের চেয়ারে জুতো পায়ে দাড়াবে তাকে নাকি যে সে চেয়ার মুছে দিবে তাকে।

প্রচারণায় এড. খোকন সাহা বলেন, ভোট কাকে দিবেন আপনাদের ইচ্ছা, উন্নয়নের ধারা যদি অব্যহত রাখতে চান অবশ্যই আমাদের ভোট দিবেন, অতিতে যারা বার লুটপাট করেছে তাদের দেখে, যারা অপকর্ম করেছে তাদের আপনারা ভোট দিবেন না।
এ সময় উপস্থিত ছিলেন নারায়ণগঞ্জ জজ কোর্টের পিপি অ্যাড. ওয়াজেদ আলী খোকন, জেলা আইনজীবী সমিতির সাবেক সভাপতি অ্যাড. হাসান ফেরদৌস জুয়েল, সভাপতি প্রার্থী অ্যাড. মুহাম্মদ মোহসীন মিয়া, সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী অ্যাড. মাহাবুবুর রহমানসহ প্যানেলের অন্যান্য সদস্যরা।

এদিকে, বিএনপির প্রচারণায় এড. সাখাওয়াত হোসনে বলেন, এবারের নির্বাচন আমরা একটা চ্যালেঞ্জ হিসেবে নিবো। নির্বাচনের শেষ পর্যন্ত প্রতিদ্ব›দ্বীতার মাধ্যমে আমরা মাঠে থাকবো। যারা আইনজীবীদের ভোট নিয়ে ছিনিমিনি খেলে তারা এই দেশের নির্বাচনী ব্যবস্থায় একটি কলঙ্কজনক অধ্যায় সৃষ্টি করেছে। আমাদের যে ১৭ জনের প্যানেল দিয়েছি তাদের সকলকে আপনারা ভোট দিয়ে জয়যুক্ত করবেন। আমাদের যদি ভোট দিয়ে নির্বাচিত করেন তাহলে আমরা আইনজীবীদের সকল সমস্যা দূর করবো।

0