এনসিসি নির্বাচন নিয়ে চাপে না.গঞ্জ বিএনপি

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: ১৬ জানুয়ারীর নারায়ণগঞ্জ সিটি নির্বাচনকে ঘিরে প্রচন্ড চাপে রয়েছে বিএনপি। নির্বাচনে অংশগ্রহণের জন্য তৃনমূল থেকে চাপ দেয়া হচ্ছে শীর্ষ নেতাদের। জেলার একাধিক শীর্ষনেতা দলীয় নেতা-কর্মীদের চাপের কথা স্বীকার করে লাইভ নারায়ণগঞ্জকে বলেন, বিএনপি একটি নির্বাচনমুখী দল। আমরা সব সময় নির্বাচনের পক্ষে। কিন্তু বর্তমানে নির্বাচনকে রাতের নির্বাচনে পরিণত করা হয়েছে। জনগনের ভোটের অধিকার ছিনিয়ে নেয়া হয়েছে। একারণে বিএনপির হাই কমান্ড বর্তমান সরকারের আমলে কোন নির্বাচনে অংশ না নেয়ার ঘোষনা দিয়েছে। যেহেতু ৩০ নভেম্বর বহুল আলোচিত নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের নির্বাচনের তফসিল ঘোষনা করা হয়েছে। ইতিমধ্যে ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগ তাদের দলীয় প্রার্থী ঘোষনা করেছে, তাই তৃনমূল নেতা-কর্মীরা চাইছেন বিএনপি তথা চারদলীয় জোট নির্বাচনে অংশগ্রহণ করুক। এব্যাপারে সবাই তাকিয়ে আছে কেন্দ্রের দিকে। এই মুহুর্তে নির্বাচন বা অন্য কিছুর চেয়ে দেশমাতা বেগম জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তি আমাদের কাছে সবচে গুরুত্বপূর্ণ। দেশের জনগনের চাওয়াও এটি। সরকারের ফ্যাসিষ্ট কার্যকলাপের বিরুদ্ধে দেশ তথা নারায়ণগঞ্জবাসীও ক্ষুব্ধ। বিএনপি নির্বাচনে অংশ নিলে প্রতিবাদস্বরূপ জয়লাভ করবে বলে মনে করি।

এব্যাপারে জেলা বিএনপির আহ্বায়ক তৈমূর আলম খন্দকার বলেন, সিটি নির্বাচনে যাওয়ার জন্য নেতা-কর্মীদের ব্যাপক চাপ রয়েছে। সারাদিনই এনিয়ে দফায় দফায় মিটিং হয়েছে। কেন্দ্র থেকে নির্দেশ না আসা পর্যন্ত আমরা কিছু বলতে পারছিনা। আর দল নির্বাচনে না গেলে আমিও নির্বাচনে অংশ নিতে পারিনা। যেহেতু আমি চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা এবং জেলার আহ্বায়ক। দলের সিদ্ধান্তের বাইরে গিয়ে স্বতন্ত্র নির্বাচন করার কোন ইচ্ছা আমার নেই। তবে দল নির্বাচনে গেলে অবশ্যই নেতা-কর্মীদের বিমুখ করবো না।

মহানগর বিএনপির সিনিয়র সহ সভাপতি শাখাওয়াত হোসেন খান লাইভ নারায়ণগঞ্জকে বলেন, এই মুহুর্তে নির্বাচন আমাদের কাছে মুখ্য নয়, মুখ্য হচ্ছে দলীয় চেয়ারপার্সনের নিঃশর্ত মুক্তি ও চিকিৎসার ব্যবস্থা করা। এই দাবির প্রতি শ্রদ্ধা রেখে আমি প্রতিবাদ স্বরূপ নারায়ণগঞ্জ সিটি নির্বাচনে মেয়র পদে নির্বাচন করবো। রোববার বেলা ১১টায় মনোনয়ন কিনবো। যেহেতু বিএনপি ও চারদলীয় জোটের বিশাল ভোট ব্যাংক রয়েছে নারায়ণগঞ্জে। বেগম খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তিই হবে আমাদের নির্বাচনের মূল দাবি। পাশাপাশি দীর্ঘ ১৮ বছরে নারায়ণগঞ্জ নগরবাসী উন্নয়ণ বঞ্চিত হয়েছে, যারা এতো বছর ধরে আওয়ামী লীগের এই মেয়রের নিগৃহীত হয়েছে তাদের প্রতিও আহ্বান থাকবে আধুনিক নারায়ণগঞ্জ গঠনে আমার পাশে থাকুন।