কাউকে ভয় পেলে চলবে না: মেয়র আইভী

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: ‘আপনারা যদি সত্যের সাথে না থাকেন, সাহস করে সত্য কথা না বলেন তাহলে বাচ্চারা কি শিখবে? ‘হ্যা’ কে ‘হ্যা’ বলতে হবে ‘না’ কে ‘না’ বলতে হবে। কিসের এত ভয় ? কাউকে ভয় পেলে চলবে না। হায়াৎ মউতের মালিক আল্লাহ। আমরা ভয় পাই? না আমরা টাকার কাছে নতজানু? মনে হয় আমরা কোথাও না কোথাও গিয়ে আত্মসমর্পণ করি। আমার মনে হয় আত্মসমর্পণটা আল্লাহর কাছে করলে ভালো হয়। আমি চাই বীর মুক্তিযোদ্ধারা কোনো ভয় না পেয়ে আমার পাশে এসে দাঁড়াক।’

বুধবার (১১ মে) দুপুরে নগর ভবনের সভাকক্ষে মুক্তিযোদ্ধা নাসির উদ্দিনের মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান কমান্ড ও মুক্তিযোদ্ধা নাসির উদ্দিন-শাহ্ শরীফুন নেছা ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে সুবিধা বঞ্চিত শিক্ষার্থীদের মধ্যে স্কুল ড্রেস, ব্যাগ, গল্পের বই ও চকলেট বিতরণ অনুষ্ঠানে নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র সেলিনা হায়াৎ আইভী এসব কথা বলেন।

তিনি আরও বলেন, নারায়ণগঞ্জ শহরের প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলি জরাজীর্ন। কেন এ অবস্থা আমরা জানিনা। সিটি কর্পোরেশনের উদ্যোগে নারায়ণগঞ্জের সুইপার কলোনীতে একটি স্কুল পরিচালনা করা হয়। এনসিসি’র উদ্যোগে আরও চারটি স্কুল গড়ে তোলার কাজ চলছে। সুবিধা বঞ্চিত শিশুরা প্রাথমিক স্কুলে গেলেও একটু বড় হলেই তাদের কাজে দিয়ে দেয়া হয়। ফলে তাদের পড়াশোনা শেষ হয়না। শহরাঞ্চলের এই ঝড়ে পড়া রোধে সিটি কর্পোরেশন কিছু কিছু কাজ করছে। তবে এটি কিভাবে আরও সমন্বিতভাবে করা যায় তা নিয়ে আমাদের ভাবতে হবে।

নারায়ণগঞ্জ প্রেসক্লাবের সাধারন সম্পাদক ও জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান কমান্ডের আহ্বায়ক শরীফ উদ্দিন সবুজের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন দৈনিক সংবাদের চীফ রিপোর্টার সালাম জুবায়ের, জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের ডেপুটি কমান্ডার এড. নুরুল হুদা, সদর উপজেলা কমান্ডার শাজাহান ভূইয়া জুলহাস, সদস্য সচীব ইঞ্জিনিয়ার রাজিব, এনসিসি কাউন্সিলর মনিরুজ্জামান মনির, হেরিটেজ স্কুলের ভাইস প্রিন্সিপাল দেলোয়ার হোসেন কাজল, মুক্তিযোদ্ধা নাসির উদ্দিন-শাহ্, শরীফুন নেছা ফাউন্ডেশনের অন্যতম সমন্বয়কারি নিলা আহমেদ নিশি, শিরিন সুলতানা, সদস্য নিখিল হোসেন আমন, আহমেদ অনন্ত শাহ্, তন্ময় রওনক, আহমেদ নেহাল শাহ্, হেরিটেজ স্কুলের শিক্ষিকা সানজিদা ইয়াসমিন, শায়লা বর্ণা, সন্তান কমান্ডের সদস্য ডা. ওয়াজেদুর রহমান, জহিরুল ইসলাম, সাঈফ রেজা সুমন, লেখক সাব্বির খান, আলোকচিত্র শিল্পী শওকত মিথুন প্রমুখ।