চাষাঢ়ায় অপহৃত কমিউনিটি পুলিশের সদস্য উদ্ধার, গ্রেপ্তার ৩

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: শহরের চাষাঢ়ায় অপহৃত কমিউনিটি পুলিশের সদস্য নাছিরকে মাসদাইর গুদারাঘাট এলাকা থেকে আহতবস্থায় উদ্ধার করেছে ফতুল্লা মডেল থানা পুলিশ। এ সময় একটি অটোরিক্সাসহ  অপহরনকারী চক্রের ৩ সদস্যকে গ্রেপ্তার করা হয়। মঙ্গলবার (২৮ জুন) বেলা ১২ টার দিকে এ ঘটনাটি ঘটে। এদিকে আহত নাছিরকে উদ্ধারের পর নারায়ণগঞ্জ জেনারেল (ভিক্টোরিয়া)  হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে বলে জানা যায়।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলো লালমনিরহাট জেলার সদর থানার ফাতান্ডারির শহিদুলের পুত্র ও ফতুল্লা মডেল থানার জামতলার খোকনের ভাড়াটিয়া   মিঠু (২০), একই থানা এলাকার ফাতান্ডারির মোফাজ্জলের পুত্র ও ফতুল্লা থানার জামতলার রব মিয়ার ভাড়াটিয়া জনি (১৮) ও একই থানা এলাকার  আবুল কালামের পুত্র জহিরুল (২৩)।

জানাগেছে, চাষাড়ার প্রধান সড়কে কমিউনিটি পুলিশের সদস্য নাছির ট্রাফিক পুলিশের সাথে যানজট নিরসনে কাজ করছিলো।  বেলা বারোটার দিকে অপহরণকারী চক্রের ৪/৫ জনের একটি দল কমিউনিটি পুলিশের সদস্য নাছিরকে জোড়পূর্বক অটোরিক্সায় করে মাসদাইর গুদারাঘাট সংলগ্ন দেয়াল ঘেরা ভুইয়ার বাড়ীর ভিতরে নিয়ে যায়।  সেখানে নিয়ে  নাছির কে কাঠের টুকরো ও ইট দিয়ে আঘাত করে বেদম প্রহার করা হয়।
পরে সংবাদ পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে নাছির কে উদ্ধার সহ তিন জনকে গ্রেপ্তার করলেও পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে পালিয়ে যেতে সক্ষম হয় সবুজ, রমজান নামে আরো দুই যুবক।

আটককৃতরা জানায় তারা সকলেই পেশায় অটোরিক্সা চালক। তারা জামতলার নজরুলের গ্যারেজের অটোরিক্সা ভাড়া নিয়ে চালিয়ে আসছিলো।  কমিউনিটি পুলিশের নাছির মঙ্গলবার সকালে চাষাড়া এলাকায় তাদের চারটি রিক্সার চাকা পাংচার করে দিয়েছিলো। তাই তারা এ কাজটি করেছে।

ঘটনাস্থলে যাওয়া ফতুল্লা মডেল থানার উপপরিদর্শক নজরুল ইসলাম জানায়, বেলা বারোটার দিকে ৪-৫ জন যুবক চাষাড়া থেকে কমিউনিটি পুলিশের সদস্য নাছির কে অপহরণ করে অটোরিক্সায় করে মাসদাইর এলাকায় নিয়ে গিয়ে বেদম মারধর করে।
পুলিশ সংবাদ পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে স্থানীয়বাসীর সহায়তায় রক্তাক্তবস্থায় নাছির কে উদ্ধার করে এবং আটক করে তিনজনকে। তবে পালিয়ে যেতে সক্ষম হয় সাথে থাকা আরো কয়েকজন। আহত নাছির কে চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এ সময় একটি অটোরিক্সাও আটক করা হয়।

নারায়ণগঞ্জ জেলা ট্রাফিক পুলিশের (এডমিন) টি,আই করিম জানায়, যানজট নিরসনে এবং অটেরিক্সা-ইজিবাইক যাতে শহরে প্রবেশ করতে না পারে সে সকল বিষয়ে কমিউনিটি পুলিশের সদস্য নাছির তাদের হয়ে কাজ করছিলো। বেলা ১২ টার দিকে নাছির চাষাড়া রেল স্টেশন সংলগ্ন একটি রেস্টুরেন্টে নাস্তা করছিলো। এমন সময় চার-পাঁচজন যুবক টেনে হিচড়ে রেস্টুরেন্ট থেকে নাছির কে বের করে অপহরণ করে মাসদাইর এলাকায় নিয়ে যায়।  সেখানে নিয়ে তাকে প্রচন্ড রকমের মারধর করে রক্তাক্ত জখম করে। পরে তাদের ইমরান নামক এক কর্মকর্তা থানা পুলিশের সহায়তা ও স্থানীয়বাসী কে সাথে নিয়ে নাছির কে উদ্ধার করে এবং পুলিশ তিনজনকে গ্রেপ্তার করে। আহত নাছির হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। এ বিষয়ে উর্ধ্বর্তন কর্তৃপক্ষের সাথে আলোচনা করে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে বলে তিনি জানান।