চ্যাম্পিয়ণ ট্রফি নীট কনসার্ণ’র ঘরে

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: দিনের শুরুটা ভাল ছিলনা নীট কনসার্ণের জন্য। সময় গড়াতেই প্রতিকূলকে নিজেদের অনুকূলে নিয়ে প্রিমিয়ারের শিরোপা নিজেদের ঘরেই রেখে দিল তারা। মঙ্গলবার (২৮ জুন) ফতুল্লা খান সাহেব ওসমান আলী স্টেডিয়ামে লীগের ৩৬ নম্বর ম্যাচটি ছিল শিরোপা নির্ধারণী ম্যাচ। ১০৩ রানের বড় ব্যবধানে জিতে নীট কনসার্ণ।

গতবারের চ্যাম্পিয়ণ নীট কনসার্ণ ক্রিকেট একাডেমী ও রানার্সআপ নারায়ণগঞ্জ ক্রিকেট একাডেমী একে অপরের মোকাবেলায় মাঠে নামে। ফাইনালে একতরফা ম্যাচ জিতে চ্যাম্পিয়ণ হলো নীট কনসার্ণ ক্রিকেট একাডেমী। সকালে টস জিতে প্রথমে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেন নীট কনসার্ণ অধিনায়ক তৈয়বুর রহমান পারভেজ।

মাইদুল ইসলাম অঙ্কনের দৃঢ়তায় তারা ৫০ ওভারে তোলে ১৮৮ রান। ওপেনার আব্দুল কাদির সজল ফিরেছেন ১ ছয় ও ৩ চারে ৩০ রানে। মাইদুল ইসলাম অঙ্কন ৩ ছয় ও ২ চারে আউট হন ৫৯ রানে। ফয়সাল সরকার ১ ছয়ে ১৭ রানে ফিরেন। টেলএন্ডে পিয়াস ও অলিউল্লাহ দৃঢ়তা দেখান। পিয়াস ২ ছয়ে করেন ৩৪ রান। অলিউল্লাহ ২ চারে ফিরেন ২০ রানে। নারায়ণগঞ্জ ক্রিকেট একাডেমীররাব্বি ও সাগর ৩টি করে উইকেট পান।

জবাব দিতে গিয়ে নীট কনসার্ণে স্পিন ঘূর্ণিত কাবু হয়ে পড়ে নারায়ণগঞ্জ ক্রিকেট একাডেমী। দলের কোন ব্যাটসম্যানই স্বাভাবিক খেলা খেলতে পারেননি। নীট কনসার্ণের বোলারদের চাতুরতায় তারা সহজেই হার মানে। জহির ১৫ রান করেন ১ ছক্কায়। ১১ রান করে আউট হন রইচ ও তারিক। রাফসান ১ ছয়ে আউট হন ১৯ রানে। নীট কনসার্ণের নাজমুল অপু পান ৪ উইকেট। অলিউল্লাহ ও শরীফ পান ২টি করে উইকেট। এই ম্যাচের মধ্য দিয়ে প্রিমিয়ার ডিভিশন ২০২১-২২ মওশুমের খেলা শেষ হলো।

সংক্ষিপ্ত স্কোর-

নীট কনসার্ণ ক্রিকেট একাডেমী: ১৮৮/১০(৫০ ওভার) মাইদুল অঙ্কন-৫৯, পিয়াস-৩৪, সজল-৩০, অলিউল্লাহ-২০, ফয়সাল-১৭। অতিরিক্ত-৮। রাব্বি-৩/৩৫, সাগর-৩/৩৯।

নারায়ণগঞ্জ ক্রিকেট একাডেমী: ৮৫/১০(৩২ ওভার ৩ বল) রাফসান-১৯,জহির-১৫, রইচ উদ্দিন-১১, তারিক-১১। অতিরিক্ত-৮। নাজমুল অপু-৪/২৬, মোহাম্মদ শরীফ-২/১৩, অলিউল্লাহ-২/১৪।