জনগণের ট্যাক্সের টাকায় উন্নয়ন, কারো বাবার টাকায় নয়: সেলিম ওসমান

0

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, লাইভ নারায়ণগঞ্জ: সরকারি টাকা খরচ করে বলি না, আমি এটা করে দিলাম, ওটা করে দিলাম। এমন কী মাননীয় প্রধানমন্ত্রীও এটা বলেন না, আমি করে দিলাম। প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমরা এটা করে দিলাম। অথচ, একজন বলেন, ‘আমি করে দিলাম’।

নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের মেয়র ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভীকে উদ্দেশ্য করে শুক্রবার (১৯ ফেব্রুয়ারি) বিকালে বন্দরের একটি অনুষ্ঠানে এ কথা বলেন নারায়ণগঞ্জ-৫ আসনের সংসদ সদস্য সেলিম ওসমান।

তাঁর ভাষ্য, ‘সিটি এলাকায় যে টাকা দিয়ে উন্নয়ন করা হচ্ছে। সেটা আমাদের পরিশ্রমের টাকা। আমরা ট্যাক্স দিচ্ছি, তাঁর বিনিময় আমাদের জমির উন্নয়ন আপনি করে দিতে পারছেন। এটা কারো বাবার টাকায় নয়’।

‘অন্যের টাকায় দানবীর’ বক্তব্যের প্রেক্ষিতে সেলিম ওসমান বলেন, আমি দান করি না। আমি ভবিষ্যৎ প্রজন্মের জন্য কাজ করি। আমার এটা দায়িত্ব, পালন করি।

সেলিম ওসমান বলেন, নারায়ণগঞ্জের প্রতিটি সিটে আওয়ামী লীগের লোক দরকার। আমাদের তো দিন শেষ। আমাদের পরবর্তীতে রয়েছেন বাবু খোকন সাহা, চন্দন শীল, ভিপি বাদল। এছাড়াও নিজাম, হেলাল, সাজনু, নিপুরা রয়েছে। প্রত্যেকেই মেয়র, সংসদ সদস্য, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান হওয়ার মতো যোগ্যতা রাখে। শুধু মাত্র তাদের নির্ধারণ করতে হবে, কে কোন পদে নির্বাচিন করবেন। আমি বাদলকে অনুরোধ করবো, আগামীতে সিটি করপোরেশন নির্বাচনের জন্য প্রস্তুতি নাও। নির্বাচন তোমাকে করতে হবে। পরিবর্তন হতেই হবে।

অনুষ্ঠানটিতে মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক খোকন সাহা বলেন, ‘পত্রিকায় বললেন, সেলিম ওসমান পরের ধনে পোদ্দারি করে, অন্যের টাকায় দানবীর। আচ্ছা, আপনার কথাই মানলাম। সেলিম ওসমান অন্যের টাকায় যত উন্নয়ন করেছে, আপনি ৩ ভাগের এক ভাগ করে দেখান। আপনাকে ধন্যবাদ দিবো। আপনি জানেন না, সেলিম ওসমান অন্যের টাকায় দানবীর না। সেলিম ওসমানের বিশাল ব্যবসা। সামান্য গরুর খামারের টাকা দিয়ে উনার পরিবার চলে। বাকি টাকা দেশের মানুষের জন্য খরচ করেন। নারায়ণগঞ্জ-৫ আসনে ব্যক্তিগত ফান্ড থেকেই ১০০ কোটির উপরে সে উন্নয়ন করেছে। আমি বলবো, আপনি জনগণের টাকায় পোদ্দারি করছেন। জনগণ আপনাকে অবশ্যই আগামীতে প্রত্যাহার করবে।’

ধামগড় ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মাসুম আহমেদ এর সভাপতিত্বে ওই অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন নারায়ণগঞ্জ-৫ আসনের সংসদ সদস্য একেএম সেলিম ওসমান, প্রধান বক্তা বন্দর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা এম এ রশিদ, বিশেষ অতিথি ছিলেন নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এড. আবু হাসনাত মো. শহীদ বাদল, মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এড. খোকন সাহা, মহানগর আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি বাবু চন্দন শীল, জেলা জাতীয় পার্টির আহ্বায়ক সানাউল্লাহ সানু, বন্দর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক কাজিম উদ্দিন প্রধান, বন্দর উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান শামিলা হোসনে শান্তা উপস্থিত ছিলেন।

প্রসঙ্গত, সম্প্রতি নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের মেয়র ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভী নারায়ণগঞ্জ-৫ আসনের সংসদ সদস্য সেলিম ওসমানকে উদ্দেশ্য করে বলেছিলেন, ‘সেলিম ওসমান অন্যের টাকায় দানবীর’।

0