জীবন রাঙানো তারুণ্যের আইডল শাহ্ নিজামের জন্মদিন আজ

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, লাইভ নারায়ণগঞ্জ: ঘড়ির কাঁটা থেমে নেই। প্রতিটি মুহূর্তেই জীবন থেকে একটি একটি করে সেকেন্ড হারিয়ে যাচ্ছে। যারা সেকেন্ড ধরে ধরে জীবনকে রাঙাতে পারে তারাই একসময় সাফল্যের শীর্ষে পা রাখে। তেমনই একজন জীবন রাঙানো ব্যক্তির নাম শাহ্ নিজাম।

প্রতিটি মুহূর্তকে রাঙিয়ে জীবনকে সামনে এগিয়ে নিয়ে যাওয়াই তাঁর সংগ্রাম। দলের ভিতর ও বাহিরের ষড়যন্ত্র, চড়াই-উতরাই পেরিয়ে ৫১ বছর অতিক্রম করলেন তিনি। আজ ৩ অক্টোবর তাঁর ৫২ তম জন্মদিন।

নগরীর শীতলক্ষ্যা এলাকার বাবা শাহ্ নুর উদ্দিন ও মা রওশন আরা আহাম্মেদ এর সংসারে ১৯৬৯ সালের ৩ অক্টোবর জন্মগ্রহণ করেন শাহ্ নিজাম। তিন ভাই ও পাঁচ বোনের মধ্যে তিনি পঞ্চম।

শাহ্ নিজামের শৈশব ও কৈশোর কেটেছে নারায়ণগঞ্জ ও মুন্সীগঞ্জ জেলায়। মুন্সীগঞ্জের সরকারি কে. কে মাধ্যমিক বিদ্যালয় থেকে তার ছাত্র জীবন শুরু হয়। পরবর্তীতে তিনি নারায়ণগঞ্জ বার একাডেমী থেকে এসএসসি পাস করেন এবং সরকারি তোলারাম কলেজ থেকে উচ্চতর ডিগ্রি অর্জন করেন।

১৯৮৫ সালে প্রথম ছাত্র রাজনীতিতে যুক্ত হন শাহ নিজাম। ৯০ দশকে পুরোপুরিভাবে রাজনীতিতে প্রবেশ করে শাহ্ নিজাম নারায়ণগঞ্জ আওয়ামী লীগের একজন সফল রাজনৈতিক নেতা হিসেবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করেন। শাহ্ নিজাম বর্তমানে নারায়ণগঞ্জ মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করছেন।

নিজস্ব আচার, ব্যবহার ও কর্মদক্ষতায় তুমুল জনপ্রিয় হয়ে এই নেতাকে রাজনৈতিক অঙ্গন থেকে শুরু করে সকল শ্রেণিপেশার মানুষ জানিয়েছেন জন্মদিনের শুভেচ্ছা।

রোববার শাহ্ নিজামের ৫২ তম জন্মদিন পালন করেছে তাঁর পরিবার ও রাজনৈতিক সহকর্মীরা। জন্মদিনে শাহ নিজাম তার পরিবার, সাংসদ শামীম ওসমান, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও সজীব ওয়াজেদ জয় এর জন্য সকলে কাছে দোয়া কামনা করেন।

শাহ নিজাম তাঁর ফেসবুকে লিখেছেন, ‘দীর্ঘ ৩৭ বছর একটা আদর্শ নীতি ও বিশ্বাসের মধ্য থেকে জাতির পিতা ও জননেত্রী শেখ হাসিনার আদর্শের রাজনীতি করছি জননেতা শামীম ওসমানের নেতৃত্বে। এক মিনিটের জন্যও নিজের স্বার্থ ও অর্থনৈতিক সুবিধার কথা চিন্তা করে বেঈমানীর রাজনীতি করিনি।এটা আমার রাজনীতি জীবনের সবচেয়ে বড় অর্জন। আর তাই সততার উপর নির্ভর করে সকল ভয় ভীতি ও ষড়যন্ত্রের বিরুদ্ধে সামনের সারিতে দাড়িয়ে মোকাবেলা করেছি। তাই সকলের কাছে আজকের অনুরোধ, আমার জন্মদিনের উইশ না করে প্রতিজ্ঞা করি, আসুন যারা স্বাধীনতা বিরোধী শক্তির সাথে আতাত করে বিএনপির এজেন্ডা বাস্তবায়ন করতে চায়, প্রানের নেত্রী শেখ হাসিনার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করছে তাদের দাঁতভাঙা জবাব দেয়ার জন্য শামীম ওসমানের নেতৃত্বে ঐক্যবদ্ধ হই।দেখতে দেখতে ৫১ বছর পার হয়ে ৫২ বছর হলো। আমার এই ৩৭ বছরের রাজনীতিতে সবচেয়ে বড় অর্জন আমার মন বলে আমি বেঈমানির রাজনীতি করিনি। ভালো থাকবেন সবাই। যারা উইশ করেছেন ও যারা করেননি ধন্যবাদ সবাইকে।’