জেলা প্রশাসককে বিএনপি নেতা সেন্টু ‘আপনাকে আসামী করা হবে’

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: নারায়ণগঞ্জের পুলিশ প্রশাসনের নিকট আমি দাবি করেছিলাম, মিথ্যা মামলা থেকে বিরত থাকার জন্য। গত শুক্রবার আতাউর রহমান মুকুল ভাইকে (বিএনপি নেতা) মিথ্যা মামলার আসামী করা হয়েছে। আজকে ফতুল্লায় মিথ্যা মামলা করা হয়েছে। জানিনা আগামীকাল নারায়ণগঞ্জ সদর থানায় আমাদের নামেও মিথ্যা মামলা হতে পারে। আপনারা সতর্ক থাকুন। মামলা দিয়ে হামলা করে আমদের ঢাকায় যাওয়া বন্ধ করা যাবে না।

মঙ্গলবার (২২ নভেম্বর) বিকেলে শহরের মন্ডলপাড়া বঙ্গবন্ধু সড়কে এসব কথা বলেন মহানগর বিএনপির সাবেক ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আব্দুস সবুর সেন্টু ।

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বাঞ্ছারামপুরে লিফলেট বিলি করার সময় ছাত্রদল নেতা নয়নকে বন্দুক ঠেকিয়ে হত্যার অভিযোগে বিক্ষোভ মিছিলের আয়োজন করে নারায়ণগঞ্জ মহানগর বিএনপি।

সেখানে আব্দুস সবুর সেন্টু বলেন, পুলিশ ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বাঞ্ছারামপুরের ছাত্রদল নেতা নয়নকে গুলি করে হত্যা করেছে। আমরা বুকের তাজা রক্ত ঢেলে দেবো। তারেক রহমানের ডাকে আগামী ১০ই ডিসেম্বর আমরা ঢাকার রাজপথে হাজির হবো। নারায়ণগঞ্জ প্রশাসকের নিকট আমাদের জোড় দাবি থাকবে। আপনি জেলা প্রশাসনের অভিবাবক। আমাদের উপর যেই মিথ্যা মামলা দেওয়া হচ্ছে, যেই গায়েবি মামলা দেওয়া হচ্ছে এর জন্য আগামী দিনে আপনাকে আসামী করা হবে।

তিনি আরও বলেন, নারায়ণগঞ্জের পুলিশ প্রশাসনের নিকট আমি দাবি করেছিলাম, মিথ্যা মামলা থেকে বিরত থাকার জন্য। গত শুক্রবার আতাউর রহমান মুকুল ভাইকে (বিএনপি নেতা) মিথ্যা মামলার আসামী করা হয়েছে। আজকে ফতুল্লায় মিথ্যা মামলা করা হয়েছে। জানিনা আগামীকাল নারায়ণগঞ্জ সদর থানায় আমাদের নামেও মিথ্যা মামলা হতে পারে। আপনারা সতর্ক থাকুন। মামলা দিয়ে হামলা করে আমদের ঢাকায় যাওয়া বন্ধ করা যাবেনা।

বন্দর থানা বিএনপির সভাপতি হাজী নূর উদ্দিনের সভাপতিত্বে এ সময় উপস্থিত ছিলেন, নারায়ণগঞ্জ মহানগর বিএনপির সাবেক সহ-সভাপতি এড. জাকির হোসেন, সাবেক সহ-সভাপতি ফখরুল ইসলাম মজনু, হাজী ফারুক হোসেন, এড. রিয়াজুল ইসলাম আজাদ, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আওলাদ হোসেন, মো. ইসমাইল হোসেন, সাবেক পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক আমিনুর ইসলাম মিঠু, সাবেক মহানগর বিএনপির ছাত্র বিষয়ক সম্পাদক সরকার আলম, সাবেক যুব বিষয়ক সম্পাদক মনোয়ার হোসেন সোকন, বিএনপি নেতা এড. আব্দুল হামিদ ভাষানী, মহানগর বিএনপি নেতা আবুল কালাম আজাদ, শহীদ হাসান, মহানগর বিএনপি নেতা শহীদুল ইসলাম রিপন, বাবুল হোসেনপ, মো. হোসেন কাজল, সালাউদ্দিন দেওয়ান, বিএনপি নেতা ফরিদ হোসেন, মেজবাহ উদ্দিন স্বপন, আল মামুন, আনোয়ার হোসেন দেওয়ান, জয়নাল আবেদিন, যুবদল নেতা ও নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের ১৩নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মাকসুদুল আলম খন্দকার খোরশেদ, মহানগর যুবদল নেতা মুছা, মহিউদ্দিন, পারভেজ মল্লিক, আল আমিন, সেচ্ছাসেবক দলের সিনিয়র সহ-সভাপতি মোস্তাকুর রহমান মোস্তাক, বিএনপি নেতা ও সিটি কর্পোরেশনের কাউন্সিলর সুলতাম আহম্মেদ, বিএনপি নেতা ও সিটি কর্পোরেশনের সাবেক কাউন্সিলর হান্নান সরকার, বিএনপি নেতা জিয়াউর রহমান জিয়া, ১৪ নং ওয়ার্ড বিএনপির সাধারণ সম্পাদক শফিউদ্দিন সোহেল প্রমুখ।

, ,