ডিবির পরিচয়ে ছিনতাই করতো এরা

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, লাইভ নারায়ণগঞ্জ: নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জ থেকে ডিবি পরিচয়ে অপহরণকারী চক্রের ৫ সদস্যকে গ্রেফতার করেছে র‍্যাব-১। মঙ্গলবার (৩০ নভেম্বর) রাতে চিটাগাংরোড বাসস্ট্যান্ডের সামনে থেকে তাদেরকে গ্রেফতার করা হয়।


এসময় তাদের কাছ থেকে ডিবি লেখা ২টি জ্যাকেট, ২টি খেলনা পিস্তল, ১১ টি মোবাইল ফোন, ১টি হাতকড়া, ২৫ হাজার টাকা এবং একটি কালো প্রাইভেট কার জব্দ করা হয়।

এর আগে বুধবার (১ ডিসেম্বর) রাতে তাদের বিরুদ্ধে মো. লুৎফর রহমান নামে একজন কসমেটিক্স ব্যবসায়ী সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় মামলা দায়ের করেন।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন- বন্দরের মুছাপুর এলাকার রিপন সরদার (২৫), মুন্সীগঞ্জের শ্রীনগরের খান বাড়ী এলাকার আহমেদুল কবির খান কাজল (৪৫), ঢাকার বংশালের মোসলেম উদ্দিন বাপ্পি (৩১), বরগুনার আমতলীর মরিচবুনিয়া এলাকার আসলাম (৩২), গোপালগঞ্জ সদরের আরপাড়া এলাকার রশিদ চাকলাদার (৩২)।

এজাহার সূত্রে জানা যায়, গত ২৫ নভেম্বর সন্ধ্যার দিকে সিদ্ধিরগঞ্জের চিটাগাংরোড বাস স্ট্যান্ডের সামনে মো. লুৎফর রহমানের সাথে এক জনৈক ব্যক্তির কথা হয়। কথাবার্তার এক পর্যায়ে তখনই ওই লোক সহ আরও ৬-৭ জন লোক তাকে ডিবি পুলিশ পরিচয় দিয়ে জোরপূর্বক একটি গাড়িতে উঠায়। গাড়িতে উঠানোর পর আসামিরা তার চোখ-মুখ বেঁধে তার ব্যবহৃত মোবাইল ফোন, নগদ ৬ হাজার ৩৮০ টাকা কেড়ে নেয়। তারপর তাকে অজ্ঞাতনামা স্থানে নিয়ে তার কাছে ১০ লাখ টাকা দাবি করে। এক পর্যায়ে তারা শুক্রবার (২৬ নভেম্বর) রাতে রূপগঞ্জের চনপাড়া এলাকায় তার ভাড়া বাসার নিচে তাকে গাড়ির ভেতর রেখে তার ছেলে সাকিবের কাছে ৫ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে চলে যায়। পরবর্তীতে তাকে আসামি মোসলেম উদ্দিন বাপ্পির বাস নির্যাতন করে।

ঐ সময়ে তার ছেলে তাদের বিকাশ নাম্বারে ১ লাখ টাকা দিলে তাকে ছেড়ে না দিয়ে ভিডিও কল দিয়ে নির্যাতনের ভিডিও দেখিয়ে আরো ৫ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে এবং পরিবারের লোকজনদেরকে কোনো আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সহযোগিতা নিতে নিষেধ করে।

তার ছেলে ভূয়া ডিবি বুঝতে পেরে সোমবার (২৯ নভেম্বর) র‍্যাব-১ এর পূর্বাচল ক্যাম্পে ঐ বিষয়ে একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। আসামিরা পুনরায় তার ছেলের নিকট মুক্তিপণ দাবি করলে বাসায় কিছু স্বর্ণ-গহনা আছে বলে জানায়। আসামিরা পরদিন তার ছেলেকে রাতে চিটাগাংরোড বাস স্ট্যান্ডের সামনে আসতে বলে। তার ছেলে তখনই র‍্যাব-১ কে বিষয়টি অবগত করলে তাদের একটি দল মো. লুৎফর রহমানকে উদ্ধারসহ আসামিদেরকে গ্রেফতার করেন।

এ বিষয়ে সিদ্ধিরগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. মশিউর রহমান বলেন, গ্রেফতারকৃতদের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে। তাদেরকে আদালতেও পাঠানো হয়েছে।