নগরীতে শ্রমিকদের বিভিন্ন দাবীতে বিক্ষোভ মিছিল-সমাবেশ

0

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: বাজারদরের সাথে সঙ্গতি রেখে শ্রমিকের মজুরি পুনর্নির্ধারণ, মহার্ঘ ভাতা প্রদান, প্রতি বছর মজুরি সমন্বয়ের বিধান করা এবং করোনাকালে শ্রমিকের চাকরি, আয় ও স্বাস্থ্য সুরক্ষা নিশ্চিত করার দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বুধবার (৯ ডিসেম্বর) দুপুর ১২ টায় মাসদাইর চৌধুরী কমপ্লেক্স এর সামনে গার্মেন্টস শ্রমিক ফ্রন্ট গাবতলী-পুলিশ লাইন শাখার উদ্যোগে সমাবেশটি অনুষ্ঠিত হয়।

গার্মেন্টস শ্রমিক ফ্রন্ট গাবতলী-পুলিশ লাইন শাখার সভাপতি, জেলার সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম শরীফের সভাপতিত্বে মানববন্ধন-সমাবেশে বক্তব্য রাখেন, সমাজতান্ত্রিক শ্রমিক ফ্রন্ট নারায়ণগঞ্জ জেলার সভাপতি আবু নাঈম খান বিপ্লব, রি-রোলিং স্টিল মিলস শ্রমিক ফ্রন্টের নারায়ণগঞ্জ জেলার সাধারণ সম্পাদক এস এম কাদির, গার্মেন্টস শ্রমিক ফ্রন্ট নারায়ণগঞ্জ জেলার সহ-সভাপতি হাসনাত কবীর, সহ-সভাপতি নূর হোসেন সরদার, সহ-সাধারণ সম্পাদক রুহুল আমিন সোহাগ, গাবতলী-পুলিশ লাইন শাখার সহ সভাপতি শহীদুল ইসলাম, সহ সাধারণ সম্পাদক খোরশেদ আলম, সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুল কাহার খোকন, রিকশা, রিকশাভ্যান, ইজিবাইক সংগ্রাম পরিষদের গাবতলী-পুলিশ লাইন শাখার আহ্বায়ক মেহেদী হাসান।

নেতৃবৃন্দরা বলেন, করোনাকালে নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিসের বাজারদর অনেক বেড়েছে। কিন্তু শ্রমিকের মজুরি বাড়েনি। বরং আমরা দেখতে পাই, শ্রমিকের মজুরি দেয়ার জন্য মালিকরা সরকারের কাছ থেকে কয়েক দফা প্রণোদনা নিয়েছে কিন্তু গার্মেন্টসে কয়েক লক্ষ শ্রমিক ছাঁটাই হয়েছে। শ্রমিকের মজুরি ৪০% কেটে নেয়া হয়েছে। কর্মরত অনেক শ্রমিকের মজুরি কমিয়ে দেয়া হয়েছে। গার্মেন্টসগুলোতে করোনায় স্বাস্থ্য সুরক্ষার ব্যবস্থা মালিকরা করেনি।

নেতৃবৃন্দরা আরো বলেন, বাজারদরের বিবেচনায় শ্রমিকের মজুরি পুনর্নির্ধারণ করতে হবে। পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে প্রতি বছর মূল্যস্ফীতির বিবেচনায় মজুরি সমন্বয়ের বিধান আছে। আমাদের দেশে গার্মেন্টসে দুনিয়ায় সবচেয়ে কম মজুরি। তার উপর পাঁচ বছর পরপর মজুরি বৃদ্ধির বিধান করা হয়েছে। নতুন করে মজুরি নির্ধারণ করার পূর্ব পর্যন্ত মহার্ঘ ভাতা দেয়ার ব্যবস্থা করতে হবে। বাংলাদেশে করোনার দ্বিতীয় ঢেউ আসা শুরু হয়েছে। এসময়ে শ্রমিকের স্বাস্থ্য সুরক্ষা নিশ্চিত করতে হবে। কোন অজুহাতেই শ্রমিক ছাঁটাই, মজুরি কর্তন, মজুরি কমানো চলবে না। শিল্প এলাকাগুলোতে বিনামূল্যে শ্রমিকের করোনা পরীক্ষা ও চিকিৎসার ব্যবস্থা করতে হবে।

0