পঁচে যাওয়া লাশের শরীরের ইঁদুরে কামড়, দাফল করলেন রোজিনা

0

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, লাইভ নারায়ণগঞ্জ: করোনার মহামারিতে নারায়ণগঞ্জে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত নারীদের গোসল করানোর মহান দায়িত্ব পালন করেছেন, সদর উপজেলার এনায়েতনগর ইউনিয়ন পরিষদের সংরক্ষিত নারী সদস্য রোজিনা আক্তার। ইতিমধ্যে সে মানবতার মা খ্যাতি অর্জন করেছেন, মানবিক দিক থেকে কেউ কেউ তাকে সংগ্রামী নারী ভূষিত করেছেন।

মঙ্গলবার (২০ এপ্রিল)এনায়েতনগর ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য রোজিনা আক্তারের অফিসিয়াল ফেসবুক একাউন্টে একটি স্ট্যাটাসে এক অন্য রকম তথ্য উঠে আসে। পাঠকের জন্য স্ট্যাটাসটি হুবহু তুলে ধরা হলো-

“আল্লাহ কারিম।
সকল প্রশংসার মালিক আল্লাহ পাক।
১৮ /৪/২০২১ গতকাল রাত আনুমানিক ১১টা ৩০ মিনিট হবে। কমিশনার খোরশেদ ভাইয়ের আহবানে ছুটে যাই ১৩ নম্বার ওয়ার্ড। এক মায়ের মৃত্যু হয়েছে। ঐখানে যাওয়া পর শুনি ঐ মা ঘরের ভিতরে মরে আছে। একদিন আগে মানে আমরা যখন গোসল করাতে যাই তখন মায়ের লাশের অবস্থা নাজুক। লাশটা পঁচে যায় এবং তার শরীরের মাংস ইঁদুরে খেয়ে ফেলেছে বিভিন্ন স্থানে। এই দৃশ্য দেখে একটু ভয় পাই লাশ কিভাবে গোসল করাবো। আল্লাহ পাকের নাম নিয়ে সাহস করে গোসল করিয়ে কাফনের কাপড় পরিয়ে দেই। আমার সাথে ছিলেন খোরশেদ টিম এবং আমার বড় ছেলে রাজু আরও ছিলেন সবুজ মন্ডল এই গোসল করানোর পর মানসিক ভাবে একটু অসুস্থ হয়ে পরি। এই ভেবে যে একটা মানুষ দুইদিন আগে মরে পরে আছে কেউ জানলো না। শুনেছি ঐ মায়ের তিনটি কন্যা সন্তান আছে কিন্তু মারা যাওয়ার সময় কাওকে দেখলাম না। আল্লাহ পাকের দরবারে ফরিয়াদ জানাই আর কোন মাকে যেন একা ঘরে পরে মরে না যেতে হয়। এমন মৃত্যু যেন কোন মায়ের না হয়।’’

0