পুলিশে উপস্থিতিতে জীবন রক্ষা পেলো সিএনজি চালক

0

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, লাইভ নারায়ণগঞ্জ: নারায়ণগঞ্জের ফতুল্রায় আবারো চালক হত্যা করে সিএনজি ছিনতাইয়ের পরিকল্পনা করেছিল দুই ছিনতাইকারী। কিন্তু ঠিক সেই মুহুর্তে পুলিশ গিয়ে সিএনজির সামনে হাজির হয়। তখন ছিনতাইকারীরা তাদের দুটি ধারালো ছুরি সিএনজিতে ফেলে পালানোর চেষ্টা করে।

এ সময় পুলিশ তাদের ধাওয়া করে গ্রেফতার করেছে। চালককে হত্যা করে সিএনজিটি ছিনতাই করার পরিকল্পনার কথা পুলিশের কাছে স্বীকার করে ছিনতাইকারীরা।

রোববার (১৮ জুলাই) ভোরে ফতুল্লার অক্টোঅফিস এলাকায় ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ পুরাতন সড়কে এ ঘটনা ঘটে। সিএনজি চালকের নাম নজরুল ইসলাম।

গ্রেফতারকৃতরা হলো- ফতুল্লার মাসদাইর পাকাপুল এলাকার জামালের ছেলে বিজয় (১৯) ও একই থানাধীন পশ্চিম মাসদাইর এলাকার আ. জলিলের ছেলে নাহিদ (২৬)।

এদিকে একই রাতে কাশিপুর এলাকা থেকে ইসুফ, সাগর ও হৃদয় নামে আরও ৩ জনকে ছিনতাইয়ের প্রস্তুতির সময় ধারালো ছুরিসহ গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

সিএনজি চালক নজরুল ইসলাম জানান, তিনি জেলা পরিষদ এলাকার লিটনের সিএনজি ভাড়ায় চালিয়ে স্ত্রী ও সন্তান নিয়ে মাসদাইর এলাকায় বসবাস করেন। রোববার ভোর ৪টার দিকে মাসদাইর থেকে একজন ও তার কিছু দূর থেকে আরেকজন যুবক সিএনজিতে উঠে শহরের চাষাঢ়া যাওয়ার কথা বলে।

অক্টোঅফিসের কাছে আসলে দুই যুবক আমাকে সিএনজি থামাতে বলেন। আমি তাদের কথা না শুনায় তারা ছুরি বের করে আমাকে আঘাত করার চেষ্টা করে। এ সময় হঠাৎ পিছন থেকে পুলিশের গাড়ি এসে সিএনজির সামনে এসে আমাকে জিজ্ঞেস করেন কোনো সমস্যা। তখন পুলিশকে বিষয়টি জানালে ছিনতাইকারী দুই যুবক সিএনজিতে ছুরি ফেলে পালানোর চেষ্টা করে। তখন পুলিশ তাদের ধাওয়া করে দুজনকে গ্রেফতার করেছে।

এ বিসয়ে ফতুল্লা মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) রকিবুজ্জামান জানান, এসআই হাফিজুর রহমান অক্টোঅফিস এলাকায় দুই সিএনজি ছিনতাইকারীকে গ্রেফতার করেছে। গ্রেফতারকৃতরা চালককে হত্যা করে সিএনজিটি ছিনতাই করার পরিকল্পনার কথা পুলিশের কাছে স্বীকার করেছে। ঈদের আগে যত ধরনের অপরাধী সক্রিয় হোক না কেন তাদের প্রতিহত করা হবে।

0