পুলিশ পরিচয়ে হাতিয়ে নিলো পুলিশ সুপার কার্যালয়ের কর্মকর্তার টাকা

0

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: পুলিশ পরিচয়ে প্রতারণা করে নারায়ণগঞ্জ পুলিশ সুপার কার্যালয়ের এক কর্মচারীর টাকা হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগ উঠেছে। প্রতারণার অভিযোগে ভুক্তভোগী তানজিন হোসেন বুধবার ফতুল্লা থানায় মামলা করলেও ঘটনাটি জানাজানি হয় বৃহস্পতিবার।


তানজিন নারায়ণগঞ্জ পুলিশ সুপার কার্যালয়ের সহকারী রিডার হিসেবে কর্মরত। তিনি মামলায় আসামি করেছেন ব্রাহ্মণবাড়িয়ার জাকির হোসেন ও কালা মিয়া নামে দুই ব্যক্তিসহ অজ্ঞাতনামা আরও কয়েকজনকে।

ফতুল্লা মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আসলাম হোসেন জানান, ১৮ ফেব্রুয়ারি দুপুরে জেলার পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে কর্মরত অবস্থায় এই প্রতারণার শিকার হন তানজিন। অভিযুক্তদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

তানজিন অভিযোগ করেন, তার ব্যবহৃত সরকারি নম্বরে পুলিশের ডিআইজি পরিচয় দিয়ে কালাম নামে এক ব্যক্তি ফোন করে বলেন, তিনি (তানজিন) একটি মামলার সাক্ষী। এ নিয়ে কথা বলার জন্য তানজিনের ব্যক্তিগত ও বাসার ফোন নম্বর চান।

সেই নম্বর দেয়া হলে ওই প্রতারক চক্র তানজিনের স্ত্রীকে ফোন করে জানায় যে তানজিন গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি আছে। তার প্রচুর রক্তক্ষরণ হচ্ছে। তাকে বাঁচাতে হলে চিকিৎসার জন্য ২৫ হাজার টাকা দিতে হবে।

এমন খবর পেয়ে তানজিনের স্ত্রী ওই চক্রের দেয়া দুটি নগদ অ্যাকাউন্ট নম্বরে প্রথমে ১৫ হাজার ও পরে ১০ হাজার টাকা পাঠান। কিছুক্ষণ পর ওই নম্বরে ফোন দিলে তা বন্ধ পাওয়া যায়।

খবর পেয়ে তানজিন ঘটনাটি পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে অবহিত করেন। প্রযুক্তির সহায়তায় ফোন করা ব্যক্তি ও নগদ অ্যাকাউন্ট ব্যবহারকারীর পরিচয় শনাক্ত করে থানায় মামলা করেন তিনি।

0