‘প্রতিহতের ঘোষণা দিয়ে মাঠে নামলো না’ মাওলানা ফেরদাউস

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, লাইভ নারায়ণগঞ্জ; ছাত্র জমিয়ত বাংলাদেশ নারায়ণগঞ্জ জেলা ও মহানগর আহবায়ক কমিটির পরিচিত সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। শুক্রবার (৫ আগস্ট) বিকেলে নগরীর ‘টিউলিপ’ রেস্টুরেন্টে এ পরিচিত সভার আয়োজন করা হয়।

এ সময় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম নারায়ণগঞ্জ জেলার সাধারণ সম্পাদক মাওলানা ফেরদাউসুর রহমান। প্রধান আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ ছাত্র জমিয়ত এর সাধারণ সম্পাদক হুজাইফা ওমর।

এসময় প্রধান অতিথি বক্তব্য রেখে বলেন, আপনারা থানা ও ওয়ার্ড পর্যায়ে কমিটি গঠন করেন, আমি অর্থ, রক্ত ও দরকার পরলে নিজের জিবন দিয়ে আপনাদের পাশে থাকবো। নারায়ণগঞ্জে, নতুন এসপি সাহেব এসেছেন। তাকে অত্যন্ত মোবারকবাদ জানাই, স্বাগত জানাই। নতুন এসপি সাহেব আসলে ওলামায়ে কেরামদের সাথে দু’একটা বৈঠক করেন। আর সেখানে আমরাও দাওয়াত পাই। কিন্তু দুঃখের বিষয়। উনারাতো বুঝেন না, কোন আলেমদের প্রভাব কত বেশি? ওই সরকারি কিছু মাদ্রাসা আছে, কিছু মসজিদ আছে। ওই মসজিদের আলেম ও মাদরাসার ইমামরা দেখি বড় বড় টুপি ও বড় বড় পাগরি পড়ে ডিসি সাহেব ও এসপি সাহেবের সাথে উনারা মিটিং করে। আরে সমস্ত সরকারি হুজুরদেরকে এক পাল্লায় রাখলেও এক আউয়াল সাহেবের ওজনইতো হবে না।

মাওলানা ফেরদাউস আরও বলেন, একটু কথা বললেই, সেটা তিল থেকে তাল হয়। গত শুক্রবার সারা নারায়ণগঞ্জ উত্তাল। আমরা যেদিন প্রোগ্রামটা করলাম সেদিন দিপু সাহেব প্রতিহতের ঘোষণা দিলেন। তো কোথায়, ঘোষণা দিয়ে গেলেন কোথায়? আবার আমরা যদি না নামতাম তাহলে বলতো মাওলানা ফেরদৌস পলাইছে। এটা কিন্তু বড় করে লিখত। এখন উনারা যে প্রতিহতের ঘোষণা দিলো। উনারা তো মাঠে নামলো না, তো কই উনারা? তারা তো নাই।

উক্ত পরিচিতি সভায় ছাত্র জমিয়ত বাংলাদেশ নারায়ণগঞ্জ জেলা ও মহানগর শাখার নেতা কর্মী উপস্থিত ছিলেন।