প্রেমের টানে প্রেমিকের সাথে পলায়ণ, পরিবারের দাবি অপহরণ

0

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, লাইভ নারায়ণগঞ্জ: স্কুলে যাওয়ার পথে দেখা হয় মামুন নামে এক যুবকের সাথে। চোঁখে চোঁখে হয় না বলার অনেক কথা। সাহস করে একদিন প্রেমের প্রস্তাব দেয় মামুন, তাতে রাজিও হয়ে যায় সেই স্কুল পড়ুয়া কিশোরী। করোনাকালীন সময়ে স্কুল কলেজ বন্ধ থাকায় এবং দীর্ঘদিন মনের কথা আদান প্রদানের এক মূহুর্তে গিয়ে দুই জনেই সিদ্ধান্ত নেয় বাসা থেকে পালিয়ে গিয়ে বিবাহ করবে। তারই প্রেক্ষিতে সেই মামুন(১৮) সাথে বেরিয়ে পরে কিশোরী। এক পর্যায়ে কিশোরীর পরিবার খবর পেয়ে আড়াইহারা থানায় অপহরণের অভিযোগ দায়ের করেন।

বুধবার (৯ জুন) কলাগাছিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণীর শিক্ষার্থীকে অপহরণের অভিযোগে মামুন (১৮) নামে এক যুবককে আটক করে আড়াইহাজার থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো. শামীম আল মামুন।

অভিযুক্ত মামুন(১৮)খন্দকার কলাগাছিয়া এলাকার সফি মিয়ার ছেলে। তার বিরুদ্ধে আড়াইহাজার থানায় অপহরনের মামলা (মামলা নং-৬ (৬)২১ইং) দায়ের করা হয়েছে।

আড়াইহাজার থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো. শামীম আল মামুন জানান, মামুনের সাথে কিশোরীর প্রেমের সর্ম্পক ছিলো। সেই সুবাদে দুই জন প্লান করে বাসা থেকে বের হয়ে যায়। কিশোরীর বিদ্যালয়ে তার প্রয়োজনীয় কাজে যাবে বলে বাসা থেকে বের হয়ে মামুনের সাথে চলে যায়। পরে পরিবার আড়াইহাজার থানায় অপহরণের মামলা দায়ের করে। আমরা ১ ঘন্টার অভিযান পরিচালনা করে অভিযুক্ত মামুনকে আটক করতে সক্ষম হই। মামুনকে আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে সাথে কিশোরীকে ১২২ ধারায় জবানবন্দি নেওয়ার জন্য তাকে আদালতে উঠানো হবে। এর সাথে জরিত বাকিদের আটকের চেষ্টা অব্যাহত আছে।

0