ফতুল্লায় ফ্যানের সঙ্গে ঝুলছিল তরুণী, খালে পড়ে ছিল যুবকের লাশ

0

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, লাইভ নারায়ণগঞ্জ: নিজ ঘর থেকে তরুণীকে ঝুলন্ত অবস্থায় ও খাল থেকে অজ্ঞাত যুবকের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে।

সোমবার (১৯ জুলাই) সকালে ফতুল্লার ভুইগড় সর্দার বাড়ি থেকে ঝুলন্ত অবস্থায় তরুনীর লাশ ও কায়েমপুর ফকির নীটওয়্যারের সামনের খাল থেকে মানসিক ভারসাম্যহীন অজ্ঞাত এক যুবকের লাশ উদ্ধার করা হয়।

পরে দুইটি লাশই ময়নাতদন্তের জন্য জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

নিজত তরুণীর নাম রীনা (২২)।মৃত রীনা শেরপুর জেলার নকলা থানার মোমিনাকান্দা গ্রামের ফারুক মিয়ার মেয়ে। বাবা-মায়ের সঙ্গে ভুইগড় সর্দার বাড়িতে ভাড়া থাকতো সে। তার ৫ বছর বয়সী একটি কন্যা সন্তান আছে।

ফতুল্লা মডেল থানার ওসি রকিবুজ্জামান জানান, ধারণা করা হচ্ছে পারিবারিক কলহের জের ধরে ফ্যানের সঙ্গে ওড়না পেঁচিয়ে রীনা গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেছে। সে মানসিক বিকারগ্রস্থ ছিল। ৬ মাস আগে স্বামীর সাথে বিচ্ছেদ হওয়ার পর থেকে তিনি নিয়মিত ঘুমের ঔষধ সেবন করতেন।

ওসি আরও জানান, অজ্ঞাত মানসিক ভারসাম্যহীন ৩০ বছর বয়সী ওই যুবকের কায়েমপুর সাকিনে ফকির নিটওয়্যার লিমিটেড ৩ নং গেট সংলগ্ন খালের পানিতে পড়ে মৃত্যু হয়। স্থানীয় ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা এসে আশঙ্কাজনক অবস্থায় ওই যুবককে উদ্ধার করে। এরপর শহরের ভিক্টোরিয়া হাসপাতালে নেয়া হলে জরুরী বিভাগের কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষনা করেন।

তিনি বলেন, দু’টি বিষয় নিয়েই আরও তদন্ত চলছে। পরে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

0