ফতুল্লায় বোনকে ধর্ষণ, ভাই আটক

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: খালাতো কিশোরী বোনকে ধর্ষনের অভিযোগে খালাতো ভাইকে আটক করেছে ফতুল্লা মডেল থানা পুলিশ। বৃহস্পতিবার (২২ সেপ্টেম্বর) সকালে তাকে ফতুল্লার মুসলিমনগর এতিমখানা এলাকা থেকে আট করা হয়। এর আগে ভুক্তভোগী কিশোরীর মা বাদী হয়ে ফতুল্লা মডেল থানায় মামলা দায়ের করেছে।


অভিযুক্ত খালাতো ভাইয়ের নাম সেলিম (২২)। সে ফতুল্লা মুসলিমনগর এতিমখানা প্রেম রোডের আলমগিরের বাড়ীর ভাড়াটিয়া মোজাম আলীর ছেলে।

মামলায় উল্লেখ্য করা হয়, মামলার বাদী তার ছেলেকে নিয়ে মুসলিমনগর এতিমখানা প্রেম রোড এলাকায় ভাড়ায় বসবাস করে আসছিলো। সে বিভিন্ন বাসায় ঝিয়ের কাজ করে এবং তার ছেলে গার্মেন্টস কাজ করে। একই বাসায় বাদীর বড় বোনের ছেলে সেলিম একই বাসায় ভাড়ায় বসবাস করে গার্মেন্টসে চাকুরি করে। বাদীর মেয়ে কিশোরগঞ্জে তার এক আত্নীয়ের বাসায় থেকে পড়ালেখা করে আসছিলো। চলতি মাসের ৯ তারিখে বাদীর কিশোরী মেয়ে প্রেম রোড এলাকায় বাদীর বাসায় বেড়াতে আসে। ১১ সেপ্টেম্বর সকালে ৮ টার দিকে বাদী এবং তার ছেলে ও অভিযুক্ত সেলিম নিজ নিজ কর্মস্থলে চলে যায়। দুপুর সাড়ে ১২টায় সেলিম কাজ থেকে বাসায় ফিরে এসে বাদীর মেয়েকে একা পেয়ে জোড় পূর্বক ধর্ষন করে। বিকেল ৫ টায় একই এলাকায় ভাড়ায় বসবাস করা বাদীর বড় মেয়ে বাসায় এলে কিশোরী সম্পূর্ণ ঘটনা খুলে বলে।

এই ঘটনায় মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা সৈয়দ আজিজুল হক জানায়, ভুক্তভোগী কিশোরীর মায়ের দায়ের করা ধর্ষন মামলায় ধর্ষক সোহেলকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। বিস্তারিত তদন্ত সাপেক্ষ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।