ফতুল্লায় মাদ্রাসা ছাত্রীকে ধর্ষণের পর হত্যা, ৩ জনের যাবজ্জীবন

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: ফতুল্লায় এক মাদ্রাসা ছাত্রীকে ধর্ষণের পর শ্বাসরোধে হত্যার ঘটনায় অভিযুক্ত ৩ আসামীকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। একই মামলায় আরও দুইজনকে খালাস দেওয়া হয়েছে।

নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইবুনালের বিচারক নাজমুল হক শ্যামল মঙ্গলবার (১৬ আগস্ট) দুপুরে আসামীদের উপস্থিতিতে এ আদেশ দেন।

দন্ডপ্রাপ্তরা হলেন- ইব্রাহিম ওরফে মনা, হৃদয় ও জহিরুল ইসলাম ওরফে টিটু। খালাস পেয়েছেন হাবিব ও শাওন।

মামলার বিবরণে জানা গেছে, ২০১৫ সালের ১০ অক্টোবর ফতুল্লা থানার এনায়েতনগরের মধ্য ধর্মগঞ্জ এলাকায় রাজিম উদ্দিনের বাড়ির ২য় তলায় বাদীর কন্যাকে ধর্ষণের পর শ্বাসরোধে হত্যা করা হয়েছে।

এ ঘটনার পরদিন নিহতের মা বাদী হয়ে ফতুল্লা থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা করেন।

রাষ্ট্রপক্ষের কৌসূলী (পিপি) এড. রকিব উদ্দিন জানান, দেরিতে হলেও ন্যায়বিচার পেয়েছে বাদীপক্ষ।

আদালত পুলিশের পরির্দশক আসাদুজ্জামান জানান, মামলার তদন্ত কর্মকর্তা এসআই ইকবাল পাঁচ আসামির বিরুদ্ধে আদালতে চার্জশিট দেন। এ মামলায় আদালতে ১১ জন সাক্ষ্য দিয়েছেন। ৬ বছর মামলা চলার পর ইব্রাহিম, হৃদয় ও জহিরুলকে দোষী সাব্যস্ত করে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ড দেন বিচারক।