ফতুল্লায় যাত্রীবাহী ট্রলার ডুবি

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: ফতুল্লায় ধলেশ্বরী নদীতে বাল্কহেডের ধাক্কায় যাত্রীবাহী একটি ট্রলার ডুবে গেছে। তবে ট্রলারে থাকা ২১ যাত্রীর সবাই সাঁতরে পাড়ে উঠতে পেরেছে বলে জানান ফায়ার সার্ভিস। বৃহস্পতিবার (১১ আগস্ট) দিনগত রাত ৩টায় ফতুল্লার বক্তাবলী ফেরী ঘাটের কাছে ওই ঘটনা ঘটে। ওই ট্রলারে থাকা ২১ জন ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী ছিলেন।

ট্রলার চালক আমজাদ হোসেন গণমাধ্যমকে জানান, প্রতিদিন ভোরেই ব্যবসায়ীরা বক্তাবলী থেকে নদী পার হয়ে নারায়ণগঞ্জ শহরে যান কেনাকাটা করতে। এদিনেও বক্তাবলী অপারের ঘাট থেকে অন্তত ২০-২১ জন ব্যবসায়ী শহরে যেতে ট্রলারে উঠেছিলেন। নদীপথে কিছুটা কিছুটা দূর গেলে আলী মিয়া নামে এক যাত্রীকে ট্রলারটি চালাতে দিয়ে আমি ভাড়া আদায় করতে যাই। তখন ট্রলারটি প্রায় ওপর দিকের ঘাটের কাছাকাছি ছিল। তখনই ঢাকা থেকে মুন্সিগঞ্জগামী একটি বাল্কহেড এসে আমাদের ট্রলারের মাঝখান দিয়ে উঠিয়ে দেয়। এ সময় ট্রলারটি ডুবে যাওয়ায় যাত্রীরা সবাই সাঁতরে নদীর তীরে উঠে পড়েন। যাত্রীকে ট্রলার সামলাতে দিয়ে আমি অনেক বড় অপরাধ করেছি।

ট্রলারের যাত্রী রমজান মিয়া জানান, ট্রলারে যারা ছিলেন সবাই আমার পরিচিত। তাদের প্রত্যেককেই সাঁতরে তীরে উঠতে দেখেছি।

নারায়ণগঞ্জ ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্সের উপ-সহকারী পরিচালক আব্দুল্লা আল আরেফীন জানান, আমাদের দুইটি টিম নদীতে তল্লাশি অব্যহত রেখেছে। এখন পর্যন্ত কেউ নিখোঁজ আছেন দাবি করেননি। তারপরেও আমাদের লোকজন নদীতে রয়েছে।