ফতুল্লায় যৌতুক মামলায় আইনজীবী গ্রেপ্তার

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: যৌতুকের দাবীতে স্ত্রীকে নির্যাতনের অভিযোগে আদালতে দায়ের করা মামলায় এডভোকেট রাশেদুল আলমকে গ্রেপ্তার করেছে ফতুল্লা মডেল থানা পুলিশ।

রোববার (৭ আগস্ট) সকালে তাকে নিজ বাড়ী থেকে গ্রেপ্তার করা হয়।

গ্রেপ্তারকৃত রাশেদুল আলম ফতুল্লা মডেল থানার পাগলা পূর্ব মুসলিম পাড়ার এম,এ হাফিজ আহম্মেদের পুত্র।

জানা যায়, ২০১৮ সালের ১১ মে পারিবারিক ভাবে ফতুল্লা চৌধুরী বাড়ীর উজ্জল চৌধুরীর উর্মি চৌধুরী(২৩) ‘র সাথে বিয়ে হয় গ্রেফতারকৃত রাশেদুল আলমের। তাদের
চার বছরের দাম্পত্য জীবনে হানজালা রাফিদ বিন রাশেদ নামক আড়াই বছরের একটি ছেলে সন্তান রয়েছে। বিয়ের এক বছর যেতে না যেতেই গত দুই বৎসর যাবৎ ১০ লাখ টাকা যৌতুকের জন্য স্ত্রী ও মামলার বাদী উর্মি চৌধুরী কে নির্যাতন করে আসছিলো। মেয়ের সুখের কথা চিন্তা করে যৌতুক লোভী স্বামী এডঃ রাশেদুল আলম কে বাদীর পরিবার থেকে তিন লাখ টাকা প্রদান করে। তিন লাখ প্রদানের কিছুদিন নির্যাতন বন্ধ কিন্ত তারপরেও নির্যাতন করে আসছিলো। গত এক বছর পূর্বে যৌতুকের টাকার জন্য ছেলে সন্তান সহ বাদী কে বের করে দেয় গ্রেফতারকৃত রাশেদুল আলম। এরপর থেকে সে নিজ পিত্রালয়ে বসবাস করে আসছে। এ নিয়ে স্থানীয় ভাবে জনপ্রতিনিধিদের নিয়ে সমাঝোতার জন্য একাধিকবার বিচার-শালীসী ও হয়। কিন্ত কোন ভাবেই সমাঝোতা হয়নি।

গ্রেফতার অভিযানে নেতৃত্বদানকারী ফতুল্লা মডেল থানার সহকারী উপ-পরিদর্শক সিরাজ মাতাব্বুর জানান, গ্রেপ্তারকৃতের স্ত্রী নারায়নগঞ্জ চিফ জুডিশিশাল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে মামলা দায়ের করেন। সেই মামলার গ্রেপ্তারী পরোয়ানা থানায় এলে তাকে রোববার সকালে নিজ বাড়ী থেকে গ্রেপ্তার করা হয়।