ফতুল্লা থানা শ্রমিক লীগের সভাপতি সোহেলকে হত্যার হুমকি

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: ফতুল্লা থানা শ্রমিক লীগের সভাপতি পিয়াস আহম্মেদ সোহেল (৪৫) কে হত্যা করার দিয়েছে বলে জানা গেছে।

রোববার(৭ আগস্ট) সকালে অজ্ঞাতনামা দুস্কৃতি পিয়াস আহম্মেদ সোহেলের মোবাইল ফোনে ফোন করে অকথ্য ভাষায় গালমন্দ সহ হত্যা করার হুমকি প্রদান করে।

এ ঘটনায় পিয়াস আহম্মেদ সোহেল রোববার দুপুরে ফতুল্লা মডেল থানায় সাধারন ডায়েরী(নং -৪৩৮) করেন।

পিয়াস আহম্মেদ সোহেল জানায়, সকাল সাড়ে দশটার দিকে তার ব্যবহৃত ০১৭১১৩৩০০৯৬ মোবাইল ফোনে ০৯৬৩৮০৪৪৩৭১ নাম্বার থেকে ফোন করে তাকে অকথ্য ভাষায় গাল মন্দ সহ হত্যা করার হুমকি দিয়ে ২৫-৩০ সেকেন্ডের মধ্যে লাইনটি কেটে দেয়। এ সময় হুমকি দাতার পরচয় জানতে চাইলে তাকে বলা হয় এলাকায় থাক আসতেছি বলে সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দেয়।

তিনি আরো জানান,২০১২ সালের ২৭ আগস্ট রাত দশটার দিকে আলীগঞ্জ সমিল সড়কে তার নিজ বাড়ীর গলিতে তাকে গুলি করে হত্যার চেস্টা করে সন্ত্রাসীরা। সে যাত্রায় সে বেচে গেলেও পঙ্গুত্বের জীবন বজন করতে হচ্ছে তাকে। সে সময় ও সন্ত্রাসীরা তাকে প্রায় সময় মোবাইল ফোনে তাকে ফোন করে আক্রমনাতককথা বলতো। তাকে গুলি করার ২০-২৫ মিনট পূ্র্বে ও মোবাইল ফোনে তাকে হুমকি স্বরুপ কথা বার্তা বলে। সে সময় সে এ রকম ফোনের বিষয়গুলোতে আমলে না নেয়নি। কিন্ত রোববারের ফোনে হুমকির পর থেকে তিনি অনেকটাই আতংকিত। তাই তিনি ফতুল্লা মডেল থানায় সাধারন ডায়েরী করেছেন।

সাধারন ডায়েরীর তদন্তকারী কর্মকর্তা ফতুল্লা মডেল থানার উপ-পরিদর্শক মোস্তফা কামাল খান জানান, বিষয়টি গুরুত্ব দিয়ে তদন্ত করা হচ্ছে।