বন্দরে গৃহবধূকে গণধর্ষণ, ২০ দিন পর গ্রেফতার-১

0

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: বন্দরে এক গৃহবধূকে অপহরণের পর ৫ দিন আটকে রেখে গণধর্ষণের অভিযোগে শরীফুল ইসলাম গুড্ডু নামের এক লম্পটকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

সোমবার (১৪ জুন) তাকে বন্দরের কুড়িপাড়া এলাকা হতে গ্রেফতার করা হয়। গুড্ডু বন্দরের কুড়িপাড়া এলাকার আলতাফ ওরফে আলতু মিয়ার ছেলে। এ ঘটনায় ধর্ষণের শিকার গৃহবধূ গ্রেফতারকৃত গুড্ডুসহ ৩ জনের নাম উল্লেখ করে মামলা এন্ট্রি করেছেন ।

মামলার অপর আসামীরা হচ্ছে, বন্দরের কুড়িপাড়া নয়ামাটি এলাকার রুহুল আমিনের ভাড়াটিয়া ও মৃত তোতা মিয়ার ছেলে সোহরাব ওরফে পাগলা শুভ(৩৭) এবং একই এলাকার ছালাম মাস্টারের ছেলে ফিরোজ মিয়া(৩৬)।

প্রসঙ্গত, ভুক্তভোগী গৃহবধূ গত ২৫ মে সন্ধ্যা পৌণে ৭ টার দিকে বন্দরের মদনপুর এলাকার বারাকা হাসপাতালে যাচ্ছিলেন। হাসপাতালের গেইটের সামনে যাওয়ার পর একটি সাদা রংয়ের মাইক্রোবাস তার সামনে এসে দাঁড়ায়। কিছু বুঝে উঠার আগেই গুড্ডুসহ ৩জন তাকে জোরপূর্বক গাড়িতে তুলে অপহরণ করে ঢাকার দিকে নিয়ে যায়। এরপর অজ্ঞাতস্থানে নিয়ে দোতলা বাড়ির একটি কক্ষে ৫ দিন আটকে রেখে পালাক্রমে ধর্ষণ করে। পরে অজ্ঞাতনামা এক কাজের বুয়ার মাধ্যমে তিনি ছাড়া পেয়ে ৩০ মে বাড়ি ফিরে এসে স্বামীকে ঘটনাটি জানান।

এ ব্যাপারে বন্দর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) দীপক চন্দ্র সাহা জানান, এ ঘটনায় ধর্ষণের শিকার গৃহবধূ বাদী হয়ে সোমবার রাতে ৩ জনকে আসামী করে মামলা করেছেন। মামলার এক নম্বর আসামী শরীফুল ইসলাম গুড্ডুকে তার গ্রেফতার করা হয়েছে। বাকি আসামীদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

0