বন্দরে ছাত্রীকে যৌন হয়রানী, শিক্ষককে গণধোলাই

বন্দর করেসপন্ডেন্ট, লাইভ নারায়ণগঞ্জ: বন্দরে নবম শ্রেণির ১৪ বছরের এক ছাত্রীকে যৌন হয়রানীর অভিযোগে হাসান শিপলু (৩৫) নামে এক লম্পট প্রাইভেট শিক্ষককে গণধোলাই দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করেছে স্থানীয় এলাকাবাসী।

শুক্রবার (২৫ মার্চ) সকালে বন্দরের ফরাজিকান্দা লাহরবাড়ী এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

আটককৃত লম্পট শিক্ষক হাসান শিপলু বন্দর থানার ২০ নং ওয়ার্ড ফরাজিকান্দা লাহর বাড়ী এলাকার শাহ আলম মিয়ার ছেলে। এ ব্যাপারে ভিকটিমের পিতা বাদী হয়ে আটককৃত লম্পট শিক্ষকের বিরুদ্ধে বন্দর থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়ের করেছে। যার মামলা নং- ৩৬(৩)২২।

বন্দর থানার এসআই আবুল বাশার জানান, বন্দর গার্লস স্কুলের নবম শ্রেণির এক শিক্ষার্থীকে বন্দরের ফরাজিকান্দা এলাকার শাহ আলমের ছেলে মোঃ হাসান শিপলু দীর্ঘ দিন ধরে প্রাইভেট পড়ান । শুক্রবার সকাল সাড়ে ৭ টায় ওই ছাত্রী শিপলুর বাসায় প্রাইভেট পড়তে যায়। এ সময় লম্পট শিক্ষক শিপলু ওই ছাত্রীকে জোর পূর্বক যৌনহয়রানী চেষ্টা করে। ছাত্রীটি প্রাইভেট শিক্ষকের বাসা থেকে বের হয়ে এলাকাবাসীকে বিষয়টি জানায়। পরে উত্তেজিত জনতা শিপলুকে গণধোলাই দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করেন।

বন্দর থানার ওসি দীপক চন্দ্র সাহা জানান, ছাত্রীকে ধর্ষণ চেষ্টার ঘটনায় শিক্ষকের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। আটককৃতকে আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।