বন্যার্তদের সহায়তার জন্য অর্থ সংগ্রহের কার্যক্রম পরিচালনা করছেন সিপিবি

প্রেস বিজ্ঞপ্তি: সিলেট সুনামগঞ্জে বন্যার্তদের সহায়তার জন্য বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি সিপিবি নারায়ণগঞ্জ জেলা কমিটির উদ্যোগে শহরে সাধারণ মানুষের কাছ থেকে অর্থ সংগ্রহের কার্যক্রম পরিচালনা করছেন।

বুধবার (২২ জুন) সকাল সাড়ে ৯ টা থেকে সন্ধ্যা ৭ টা পর্যন্ত চাষাড়া মোরে এ কার্যক্রম পরিচালনা করা হয়। বন্যায় বিপর্যস্ত মানুষদের সহায়তার জন্য জেলা সিপিবি’র সভাপতি হাফিজুল ইসলাম এর নেতৃত্বে দলটির নেতাকর্মীরা অর্থ সংগ্রহের কার্যক্রম পরিচালনা করছেন। অন্যান্য নেতাকর্মীদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য লক্ষী চক্রবর্তী, জেলা কমিটির সাধারণ সম্পাদক শিবনাথ চক্রবর্তী, সম্পাদক মন্ডলীর সদস্য আঃ হাই শরীফ, জেলা কমিটির সদস্য দুলাল সাহা, শহর কমিটির সাধারণ সম্পাদক সুজয় রায় চৌধুরী বিকু, জেলা কমিটির সদস্য শোভা সাহা, ইকবাল হোসেন, এম এ শাহীন ও নুরুল ইসলাম প্রমুখ।

বন্যার্তদের সহায়তার জন্য অর্থ সংগ্রহের কার্যক্রম পরিচালনার সময় জেলা সিপিবি’র সভাপতি হাফিজুল ইসলাম বলেন সিলেট সুনামগঞ্জে বানভাসি মানুষ প্রচন্ড খাদ্য সংকটে পড়েছে। বিশুদ্ধ পানি, ঔষধ ও চিকিৎসার অভাবে মানবেতর জীবনযাপন করছে। তাদের বাঁচাতে সবাইকে এগিয়ে আসার আহবান জানিয়ে তিনি বলেন প্রকৃতির ওপর সীমাহীন অত্যাচারের কারণে অতি মাত্রায় বৃষ্টিপাতে বন্যার পানি প্লাবিত হয়ে মানুষের জীবনে বিপর্যয় নেমে এসেছে। জলবায়ুর ভারসাম্য নষ্ট হওয়ায় দ্রুত তাপমাত্রা বৃদ্ধি পাচ্ছে এবং জলবায়ুর নেতিবাচক পরিবর্তন হচ্ছে। আমাদের দেশের নদীগুলোর দুই পাশে দখল করে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান গড়ে তোলায় নদীর পানি ধারণ ক্ষমতা কমে গেছে। বিভিন্ন ভাবে নদী ভরাট হয়ে যাওয়ায় পানি প্রবাহ স্বাভাবিক নেই। বাংলাদেশের বেশিরভাগ নদীগুলো এসেছে ভারত থেকে। নদীগুলোর ওপর ভারত সরকারের একতরফা বাঁধ নির্মাণের ফলে বড় বড় নদীগুলো বিলিন হয়ে যাওয়ার কারণে বন্যা তৈরি হচ্ছে। এই মুহূর্তে বন্যার্ত মানুষদের বাঁচাতে সবাইকে এগিয়ে আসতে হবে। একই সাথে প্রকৃতি রক্ষার জন্য সবাইকে সোচ্চার হতে হবে।

অন্যান্য নেতৃবৃন্দ বন্যার্তদের দুরাবস্থা তুলে ধরে তাদেরকে বাঁচাতে সাধারণ মানুষের কাছে অর্থ সহায়তার আবেদন জানিয়ে বলেন অতি বৃষ্টিপাতে উজানের ঢলের পানি নীচু এলাকায় নেমে সিলেটের সুনামগঞ্জ প্লাবিত হয়ে হাজার হাজার মানুষের ঘরবাড়ি তলিয়ে গেছে। অসংখ্য ঘরবাড়ি গাছপালা নদীগর্ভে বিলীন হয়ে গেছে। বন্যায় বিপর্যস্ত মানুষ আশ্রয়হীন হয়ে খোলা আকাশের নীচে পানিবন্দি অবস্থায় বাঁচার লড়াই করছেন। তারা প্রচন্ড খাদ্য সংকটে পড়েছে। বিশুদ্ধ পানি, ঔষধ ও চিকিৎসার অভাবে মানবেতর জীবনযাপন করছেন। পাশাপাশি হবিগঞ্জ, মৌলভীবাজার, নেত্রকোনা, কিশোরগঞ্জ, টাঙ্গাইল, সিরাজগঞ্জ, জামালপুর, রংপুর, কুড়িগ্রাম, লাল মনির হাট, গাইবান্ধাসহ দেশের বিভিন্ন জেলা বন্যার পানি প্লাবিত হয়েছে। বন্যার্তরা সারাদেশের মানুষের কাছে সহায়তার আকুতি জানাচ্ছেন। সিপিবির পক্ষ থেকে সামর্থ অনুযায়ী বানভাসিদের সহায়তা করা হচ্ছে। একই সাথে সারাদেশে সিপিবির নেতাকর্মীরা বন্যার্তদের সহায়তার জন্য অর্থ সংগ্রহ কার্যক্রম পরিচালনা করছেন। আমরা নারায়ণগঞ্জেও বন্যার্তদের সহায়তার জন্য অর্থ সংগ্রহ করছি। বৃহস্পতিবার সকাল ৯ টায় আবারও শহরের ২ নং রেল গেইট এলাকায় অর্থ সংগ্রহ করা হবে। বন্যায় বিপর্যস্ত মানুষদের বাঁচাতে তাদের পাশে দাঁড়ানো দেশের বিবেকবান সকল সাধারণ মানুষের মানবিক দায়িত্ব ও কর্তব্য। নেতৃবৃন্দ সারাদেশে সাধারণ মানুষকে বন্যার্তদের সহায়তায় এগিয়ে আসার আহ্বান জানান।