বিদেশে অনেকে খাবার পায়নি, আমাদের অভাব হয়নি: মন্ত্রী গাজী

0

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: ‘ফ্রন্ট ফাইটারদের কারণে আমরা নিরাপদে আছি। ইউরোপ আমেরিকায় প্রতিদিন বহু লোক করোনায় মারা যাচ্ছে। প্রধানমন্ত্রীর সঠিক সিদ্ধান্তের ফলে আজকে আমরা টিকা পাচ্ছি। করোনাকালে বঙ্গবন্ধুর কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দক্ষ নেতৃত্বে দেশ এগিয়ে যাচ্ছে। তিনি ভালো ব্যবস্থাপনা করেছেন। শিল্পপতিদের প্রণোদনা দিয়েছেন। তিনি কম সুদে ঋণের ব্যবস্থা করেছেন। বিদেশে অনেক মানুষ খাবার পায়নি। আজ আমার দেশে খাবারের অভাব হয়নি।’

সোমবার (১ মার্চ) পুলিশ মেমোরিয়াল ডে ২০২১-তে কর্তব্যরত অবস্থায় জীবন উৎসর্গকারী পুলিশ সদস্যদের স্বরণে আলোচনা সভা ও সম্মাননা প্রদান অনুষ্ঠিত হয়। সেখানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন নারায়ণগঞ্জ-১ আসনের এমপি এবং বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজী (বীরপ্রতীক)।

অনুষ্ঠানের সভাপতিত্ত্ব করেন জেলা পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জায়েদুল আলম পিপিএম(বার)। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের এমপি শামীম ওসমান, নারায়ণগঞ্জ-২ আসনের সংসদ সদস্য নজরুল ইসলাম বাবু, নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রশাসক মোস্তাইন বিল্লাহ, জেলা সিভিল সার্জন ডা. মোহাম্মদ ইমতিয়াজ, পিবিআই এর পুলিশ সুপার মনিরুল ইসলাম ও জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো. আনোয়ার হোসেন।

মন্ত্রী বলেন, গাজী পিসিআর ল্যাব করার পর ফ্রন্ট ফাইটারদের আগে করোনার টেস্ট করা হলো। প্রথমে নারায়ণগঞ্জ জেলা পুলিশের ৪০ জন শনাক্ত হলো। এসপি সাহেব ভয় পেয়ে গেলো। আমরা তাদের কোয়ারেন্টাইনে রাখার ব্যবস্থা করেছিলাম। র‌্যাব- অফিসে একই অবস্থা দেখলাম। ডিসি সাহেবের কমকান্ড চমৎকার ছিলো। নারায়ণগঞ্জে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেশি ছিলো। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রচুর ত্রাণ সামগ্রী পাঠিয়েছে। সেই ত্রাণ নারায়ণগঞ্জবাসীর মধ্যে বিতরণ করেছেন ডিসি সাহেব। করোনাকালে নারায়ণগঞ্জে কেউ না খেয়ে মারা যায় নি। করোনায় যারা আক্রান্ত হয়ে মারা গেছে তাদের আত্মার মাগফেরাত কামনা করছি। পুলিশের প্রতি আমাদের সহযোগিতা অব্যাহত থাকবে।’

তিনি আরও বলেন, আমরা পাকিস্থান পুলিশকে ঘৃণা করতাম। পাকিস্তান পুলিশ ছাত্রদের নাম শুনলেই পিটাইতো। ২৫ মার্চ রাতের পর থেকে বাঙালি পুলিশের প্রতি আমার ভালোবাসা জন্মে। তারা দেশের জন্য জীবন দিয়েছেন। করোনাভাইরাস মোকাবেলায় পুলিশ ভাইদের বিরাট অবদান রয়েছে। তারা সাধারণ মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছে। মৃতব্যক্তিদের দাফন করেছে। তাদের অবদান ভুলবার নয়। নারায়ণগঞ্জ পুলিশ লাইন আগে কেমন ছিলো। আর এখন কেমন হয়েছে। আগে মাঠে পানি থাকতো এখন পানি থাকে না। বঙ্গবন্ধুর কন্যা পুলিশের কল্যাণে কাজ করে যাচ্ছে। বাংলাদেশ একদিন উন্নয়নশীল দেশে পৌছে যাবে। আমরা হয়ত দেখে যেতে পারবনা । বাবু ভাইরা দেখতে পারবেন। তখন আমাদের মনে রাখবেন।

অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন, পিবিআই এর পুলিশ সুপার মনিরুল ইসলাম, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) মোহাম্মদ মোস্তাফিজুর রহমান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ) টি, এম, মোশাররফ হোসেন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ডিবি) মোঃ জাহেদ পারভেজ চৌধুরী, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার(ডিএসবি) মোহাম্মদ শফিউল ইসলাম, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার(সদর) সুবাস চন্দ্র সাহা, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (এ সার্কেল) মো: মেহেদী ইমরান সিদ্দিকী, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (‘বি’ সার্কেল) শেখ বিল্লাল হোসেন, সহকারি পুলিশ সুপার (‘সি’ সার্কেল) মোঃ মাহিন ফরাজী, সহকারী পুলিশ সুপার (ট্রাফিক) মোঃ সালেহ উদ্দিন আহম্মেদ, নারায়ণগঞ্জ প্রেস ক্লাবের সভাপতি খন্দকার শাহ আলম, সাধারণ সম্পাদক সালাম খোকন ও অন্যন্য সাংবাদিকসহ জেলা পুলিশ ও প্রশাসনের কর্মকর্তাবৃন্দ।

0