বিয়ের ২ বছর পর যৌতুকের জন্য নির্যাতন, স্বামী আটক

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: ফতুল্লায় যৌতুকের জন্য নির্যাতনের অভিযোগে মামলা দায়ের করেছে এক গৃহবধু মোসাম্মৎ স্বর্ণা আক্তার(২৬)। রবিবার (৮ মে) অভিযুক্ত স্বামীকে আটক করেছে ফতুল্লা মডের থানা পুলিশ।

অভিযুক্ত স্বামীর নাম আলামিন(৩৪)। সে ফতুল্লা দেওভোগ আখড়ার এড. হুমায়ুন কবিরের ভাড়াটিয়া মো. আসাদ মিয়ার ছেলে।

মামলায় উল্লেখ্য করা হয়, ২০২০ সালে পারিবারিক ভাবে বাদী স্বর্নার সাথে আটককৃত আলামিনের বিয়ে হয়। বিয়ের সময় নগদ ৫০ হাজার টাকা ও দেড় ভরি ওজনের স্বর্নালংকার দেওয়া হয়। তারপরও বিয়ের পর থেকে আলামিন তার স্ত্রী স্বর্ণাকে তার পিত্রালয় থেকে যৌতুক বাবদ আরও আড়াই লক্ষাধিক টাকা নিয়ে আসার জন্য প্রায় সময় নির্যাতন করে আসছিলো। সর্বশেষ চলতি মাসের ৩ তারিখ সকাল ১১ টার দিকে স্বামী আলামিন তার স্ত্রীকে দাবীকৃত আড়াই লক্ষাধিক টাকা পিত্রালয় থেকে এনে দেওয়ার জন্য মারধর করে বাসা থেকে বের করে দেয়।

এ বিষয়ে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ফতুল্লা মডেল থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) নজরুল ইসলাম জানায়, স্ত্রীর দায়ের করা যৌতুক মামলায় স্বামী আলামিন কে রবিবার মধ্যরাতে আটক করা হয়েছে। তদন্ত সাপেক্ষ তার বিরুদ্ধে আইননত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।