ভরণ-পোষণ না দেওয়ায় সন্তানের বিরুদ্ধে মামলা

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: ভরণ-পোষণ না দেওয়ায় ছেলে ও ছেলের স্ত্রীর বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছে মনোয়ারা বেগমের ৫৩ বছর বয়সী এক নারী।সোমবার(৩ অক্টোবর) ঐ নারী তার ছেলে মোঃ মহসীন (৩০) ও ছেলের স্ত্রী সোনিয়া বেগম(২৭)’র বিরুদ্ধে ফতুল্লা মডেল থানায় মামলা দায়ের করেছেন।

বাদী মনোয়ারা বেগম চট্রগ্রাম জেলার ডমলমুরিং থানার রফিকুল ইসলামের স্ত্রী।

মামলার বাদী জানায়, বাদীর স্বামী রফিকুল ইসলাম বাস চালক ছিলেন। দীর্ঘ ১২-১৩ বছর পূর্বে বাদীর ছেলে মহসিন প্রেম করে পরিবারের কাউকে না জানিয়ে সোনিয়া বেগমকে বিয়ে করে। বিয়ের দুই বৎসর পর ছেলে তার স্ত্রীকে নিয়ে ফতুল্লা মডেল থানার কাঠেরপুল এলাকায় কর্মের সন্ধানে চলে আসে। এখানে এসে ছেলে টেইলারিংয়ের কাজ করে এবং ছেলের স্ত্রী গার্মেন্টসে চাকুরী করে কাঠেরপুল ফজল হকের বাড়ীতে ভাড়ায় বসবাস করে আসছিলো। এরই মধ্যে সাত বৎসর পূর্বে বাদীর স্বামী নিখোঁজ হয়। তাকে আর খুঁজে পাওয়া যায়নি। এরপর থেকে মাঝেমাঝে বাদী চট্টগ্রাম থেকে ছেলের নিকট বেড়াতে এসে আবার চলেও যেতো। দুই বছর পূর্বে বাদী তার ছেলের নিকট চলে আসে। এখানে এসে সে একটি গার্মেন্টসে চাকুরি করে, একই বাসায় ভাড়ায় বসবাস করে আসছিলো। গত দুই মাস পূর্বে সে অসুস্থ হয়ে পরলে ছেলের নিকট ভরণ-পোষনের দাবী করলে বাদীকে বাসা থেকে বের করে দেয়। তারপর থেকে বাদী রাস্তায় রাস্তায় ঘুরে ফিরছিলো।সর্বশেষ রোববার রাত সাতটার দিকে বাদী ছেলের বাসায় গিয়ে ভরন- পোষণের দাবী করলে ছেলে ও ছেলের স্ত্রী বাদীকে গালমন্দ করে বাসা থেকে বের করে দেয়।

ফতুল্লা মডেল থানার পরির্দশক (তদন্ত) মোহসিন মিয়া জানান, অভিযোগটি গ্রহণ করে মামলা নেওয়া হয়েছে। আসামীকে আইনের আওতায় আনার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।