মঙ্গলবার ইসি বৈঠক: আসতে পারে সিটি নির্বাচনের তফসিল!

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: নির্বাচন কমিশন সভা ডেকেছে ৩০ নভেম্বর (মঙ্গলবার)। এজেন্ডা নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন। বৈঠক থেকে আসতে পারে সিটি নির্বাচনের তফসিল। এনিয়েই চলছে নানা জল্পনা-কল্পনা। এরইমধ্যে রোববার থেকে শুরু হয়েছে ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন ফরম বিক্রি। প্রথম দিনে দলীয় মনোনয়ন ফরম কিনেছেন ১ জন। ২য় দিনে অর্থাৎ সোমবার কিনেছেন আরও ৩ জন। সম্ভাব্য প্রার্থী সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে গুঞ্জন চলছে।

জানা গেছে, মঙ্গলবার নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন নিয়ে সভা ডেকেছে নির্বাচন কমিশন। সভায় নির্বাচনের তফসিল ঘোষনা হবে কিনা তা নিশ্চিত করা না হলেও জানুয়ারী মাসের মধ্যে বিদায়ী কমিশনের শেষ নির্বাচন হিসেবে নারায়ণগঞ্জ সিটি নির্বাচন করতে চায় ইসি। এলক্ষ্যে মঙ্গলবারের সভায় তফসিল ঘোষনা অথবা তফসিল ঘোষনার তারিখ নির্ধারণ করা হতে পারে বলে জানিয়েছে সংশ্লিষ্ঠরা। এদিকে তফসিল ঘোষনার আগেই ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগ নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র পদের জন্য দলীয় মনোনয়ন ফরম বিক্রি শুরু করেছে। ১ ডিসেম্বর পর্যন্ত মনোনয়ন ফরম বিক্রি ও জমা নেয়া হবে বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্ঠরা। ৩ ডিসেম্বর বহুল আলোচিত নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে নৌকার প্রার্থী কে হচ্ছেন তা ঘোষনা করতে পারে আওয়ামী লীগ। কেন না, ওই দিন দলীয় মনোনয়ন বোর্ডেও সভা রয়েছে। সিটি নির্বাচনকে ঘিরে নারায়ণগঞ্জবাসীর দৃষ্টি এখন কেন্দ্রের দিকে। কে হচ্ছেন আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী? তা জানতে উদগ্রিব সবাই।

দলীয় সূত্র জানিয়েছে, রোববার প্রথম দিনে মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেন নারায়ণগঞ্জ মহানগর আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ সভাপতি চন্দন শীল। তার পক্ষে ছেলে অরিজিৎ শীল ২৫ হাজার টাকায় মনোনয়ন ফরমটি ক্রয় করেন। সোমবার (২৯ নভেম্বর) বিদায়ী মেয়র সেলিনা হায়াত আইভীর পক্ষে আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন ফরম কিনেছেন তার ভগ্নিপতি ও জেলা আওয়ামীলীগের সহ সভাপতি আবদুল কাদির। একই দিন মনোনয়ন ফরম কিনেন জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আবু হাসনাত শহীদ বাদল ও মহানগর আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক খোকন সাহা। আবু হাসনাত শহীদ বাদল নিজে উপস্থিত হয়ে মনোনয়ন ফরম কিনেন। অপরদিকে খোকন সাহার পক্ষে মনোনয়ন ফরম কিনেছেন তার রাজনৈতিক সচিব সুজিত সরকার।

নির্বাচনের তারিখ চুড়ান্ত না হলেও সবার দৃষ্টি এখন নির্বাচন কমিশনের দিকে। নির্বাচন কমিশনের তফসিল ঘোষনা এবং আওয়ামী লীগের দলীয় প্রার্থী হিসেবে শেষ পর্যন্ত কে নৌকা পাচ্ছেন, তা নিয়েও আলোচনা চলছে সর্বত্র। এছাড়া বিএনপি গুরুত্বপূর্ণ এ নির্বাচনে অংশ নিবে কিনা এ দিকেও দৃষ্টি রয়েছে সবার। তবে তফসিল ঘোষনার পরই সব পরিস্কার হবে বলে সংশ্লিষ্ঠরা জানিয়েছে।