মাইক-মঞ্চ-চেয়ার আছে বলেই মিথ্যাচার করবেন না: লিপি ওসমান

0

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, লাইভ নারায়ণগঞ্জ: সততার সাথে মাইক হাতে নিয়ে সত্য কথা বলেন, জনগণ মনে রাখবে। আর যদি মিথ্যাচার, অপপ্রচার করেন। ভোট দিয়ে যদি জনপ্রতিনিধি বানাতে পারে, জবাবও তারাই দিতে পারে। আমাদের দেশের ভোটারা আধুনিক। এখন যতেষ্ট সচেতন তারা। আপনি খালি বলেই যাবে, বলেই যাবেন। তারা কি উত্তর দিবে না? এটা কিন্তু হবে না। আমি বিনিত ভাবে বলছি, সততার সাথে জনগণের প্রতিনিধি হয়ে জনগণের পাশে থাকেন। আল্লাহ আপনাকে সম্মান দিয়েছে, আপনি সেই মর্যাদা রাখেন।
গোগনগর ইউনিয়নের জাতীর শ্রেষ্ঠ সন্তান বীর মুক্তিযোদ্ধাদের সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে মঙ্গলবার (২ মার্চ) বিকালে এক ‘জনপ্রতিনিধি’কে ইঙ্গিত করে এই কথা বলেন প্রধান অতিথি নারায়ণগঞ্জ মহিলা সংস্থার চেয়ারম্যান সালমা ওসমান লিপি।

এ সময় নিজের জন্য দোয়া চেয়েছেন তিনি।

বীর মুক্তিযোদ্ধা মতিউর রহমান ওয়েল ফেয়ার ফাউন্ডেশনের আয়োজনে গোগনগর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে অনুষ্ঠানটি হয়।

সালমা ওসমান লিপি বলেন, ‘যেখানে অন্যায় হয়। সেখানে প্রতিবাদ না করলে মুনাফিকি হয়। তাই অন্যায়ের প্রতিবাদ হিসেবে আমি শুধু একটা কথা বলছি। যারা এখনও মাইক হাতে নিয়ে মঞ্চে দাঁড়িয়ে জনগণের প্রতিনিধি হয়ে মিথ্যাচার, অপপ্রচার করছেন। আমি জনগণের কাতারে দাঁড়িয়ে তাঁদের বলছে, সাবধান! আজকে আপনার হাতে মাইক আছে, আপনার কাছে মঞ্চ আর চেয়ার আছে বলে আপনি মিথ্যাচার করবেন। জনগণের প্রাপ্তি নিয়ে মিথ্যাচার করবেন। এটা হতে পারে না। যেদিন জনগণের কাছে এই মাইক চলে যাবে, সেদিন আপনি পালানোর পথ পাবেন না।


সালমা ওসমান লিপি আরও বলেন, সুতরাং মিথ্যাচার আর অপপ্রচার বন্ধ করেন। জনগণকে নিয়ে খেলবেন না। আপনারা জনপ্রতিনিধি হয়েছেন, আপনাদের জনগণের জন্য দায়বদ্ধতা আছে। আপনার চেয়ার, আপনার আমানত। সেখানে আপনি জনগণের জন্য করবেনই। করাটা কোন বড় ব্যাপার না। বড় ব্যাপার হচ্ছে জনগণের সাথে মিথ্যাচার করবেন না। বড় ব্যাপার হচ্ছে জনগণকে বিভ্রান্ত করবেন না। বড় ব্যাপার হচ্ছে জনগণকে নিজের প্রশ্নে ঠকাবেন না।

বীর মুক্তিযোদ্ধা মোসলেহ্ উদ্দিনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে উদ্বোধক ছিলেন নারায়ণগঞ্জ জেলা মানবাধিকারের সভাপতি ফয়েজউদ্দিন আহম্মেদ লাভলু।

বিশেষ অতিথি ছিলেন নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের ১৭নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আব্দুল করিম বাবু, নারায়ণগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি সাফায়াত আলম সানি, বীর মুক্তিযোদ্ধা সামিউল্লাহ মিলন, বীর মুক্তিযোদ্ধা আবু হোসেন সিদ্দিকী প্রমূখ।

0
, ,