মা দুর্গার প্রাণ প্রতিষ্ঠা ও চক্ষু দানের মাধ্যমে সম্পন্ন হলো মহা সপ্তমী

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: নারায়ণগঞ্জে দুর্গাপূজা মানেই ভিন্ন আমেজ। কয়েক মাসের পরিশ্রমে সাজিয়ে তোলে ভিন্ন এক শহর। সনাতন ধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব শারদীয় দুর্গাপূজার আজ মহা সপ্তমী।

এদিকে, সপ্তমীতে দেবীকে আসন, বস্ত্র, নৈবেদ্য, স্নানীয়, পুষ্পমাল্য, চন্দন, ধূপ ও দীপ দিয়ে পূজা করেন ভক্তরা। উপোষ রেখে মায়ের পায়ে ফুলের অঞ্জলি দিয়ে চরণামৃত পান করে দিনের শুরু করেন তারা। মায়ের কাছে ভক্তদের প্রার্থনা, যুদ্ধ, বিগ্রহ হানাহানিমুক্ত একটি শান্তির পৃথিবী।

জানতে চাইলে পুরোহিত শ্রী মিনালকান্তী চক্রবর্তী লাইভ নারায়ণগঞ্জকে জানান, ষষ্ঠী ধীকালের মাধ্যমে আমরা মা দুর্গাকে বোধন করেছি এবং অধিবাসের মাধ্যমে শুরু করেছি। আজ মহা সপ্তমী। গতকাল বিল্ববৃক্ষ মাধমে মা দুর্গার আগমন জানানো হয়েছে। আজকে থেকেই মায়ের পূজা শুরু করা হয়েছে। আশ্বিন মাসে মায়ের পূজা মানে হলো মায়ের অকাল বোধন করা।

তিনি আরও বলেন, আজকে মা দুর্গার প্রাণ প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে, মাকে চক্ষু দান করা হয়েছে। এছাড়া মায়ের সাথে প্রতিটা দেবতাকেই প্রাণ প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে। মায়ের একটি রূপ হলো চন্ডি, দুর্গা মায়ের একটি অঙ্গ। তাই আজ মহা সপ্তমীতে চন্ডি পূজা মধ্যে দিয়ে সম্পন্ন হলো চন্ডি মায়ের পূজা। মায়ের চন্ডি রূপে অনেক অশুরকে বধ করেছেন। তাই আমরা সপ্তমীতে এই পূজা করে থাকি।

, , ,